বয়স মাত্র এক বছর। তবে জনপ্রিয়তা বলিউড তারকাদের থেকে কোনও অংশে কম নয় তৈমুর আলি খানের। প্রায়শই বাবা-মা, সেফ আলি খান এবং করিনা কপূর খানের সঙ্গে নানা জায়গায় দেখা যায় পতৌদি বংশের ছোট নবাবকে। তাঁর ছবিতে নিত্য দিনই সোশ্যাল মিডিয়া যেন চাঁদের হাট।

এবার নব রূপে হাজির খুদে তারকা। এক বছর বয়সেই নাকি ‘জিম’-এ ভর্তি হয়েছে সে, এমনই প্রকাশ্যে অসেছে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে।

‘মাই জিম’ থেকে ফিরছেন খুদে তৈমুর। (ছবি : তৈমুর আলি খানের ইন্সটাগ্রাম)

সম্প্রতি ‘মাই জিম’-এর বাইরে দেখা গিয়েছিল তৈমুকে। এটি একটি ‘চাইল্ড ফিটনেস সেন্টার’, অর্থাৎ শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্র। ছ’মাস থেকে ১০ বছর বয়সী বাচ্চাদের সেখানে শরীর এবং স্বাস্থ্যের প্রতি সচেতন থাকার প্রক্রিয়াগুলি শেখানো হয়। কিছুদিন আগে এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রেই অনুষ্ঠিত জন্মদিনের পার্টিতে দেখা গিয়েছিল খুদে নবাবকে মা করিনার সঙ্গে। ছিল তুষার কপূরের ছেলে লক্ষ্য কপূরও।

ছেলের প্রতিপালনে কোনও খামতি রাখতে চান না করিনা। শোনা গিয়েছে, তৈমুরকে বিদেশে পড়াশনা করতে পাঠানোরও ব্যবস্থা করছেন তারকা দম্পতি। পাশাপাশি চলছে ‘জিম’-এর ট্রেনিং। ছোটবেলা থেকেই এত কিছুর প্রশিক্ষণ পাচ্ছে খুদে। বড় হয়ে আরও কী কী করবে তা সত্যিই ভাববার বিষয়।