বিশ্বাসভঙ্গ করল প্রেমিক। ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি পোস্ট করে দিল ফেসবুকে। আর সেই লজ্জাতেই আত্মঘাতী হল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী এক ছাত্রী।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সুতি থানার ইন্দ্রনগরে। পলাতক প্রেমিককে খুঁজছে পুলিশ।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

স্থানীয় সূত্রে খবর, সতেরো বছর বয়েসি ওই ছাত্রীর সঙ্গে প্রায় এক বছর ধরে সুতি থানা এলাকার ডিহিগ্রামের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যদিও, এই বিষয়ে যুবতীর বাড়ির কেউ কিছু জানতেন বলেই প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। অভিযোগ রবিবার রাতে নাদিন শেখ নামে ওই যুবক দু’জনের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের বেশ কিছু ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে দেয়। বিষয়টি নজরে পড়ে ওই ছাত্রীরও।

অভিযুক্ত নাদিন শেখের সঙ্গে ওই ছাত্রী। নিজস্ব চিত্র

এর পরই নিজের বাড়িতেই আত্মঘাতী হয় ওই ছাত্রী। বাড়িতে নিজের ঘরের থেকে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। ছাত্রীর বিছানাতেই তার মোবাইলে ওই ছবিগুলি দেখার পরে আত্মহত্যার কারণ স্পষ্ট হয় পুলিশ এবং পরিবারের কাছে।

নাদিন শেখ নামে ওই যুবকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে যুবতীর পরিবার। ঘটনার পরই অবশ্য পালিয়ে গিয়েছে নাদিন। তার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

অত্যন্ত নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান ওই কিশোরীর মা পরিচারিকার কাজ করেন। বাবার উপার্জনও সামান্য। তার মধ্যেই দুই মেয়ের পড়াশোনার খরচ জোগাড় করছিলেন তাঁরা। গোটা ঘটনায় শোকস্তব্ধ ওই পরিবার এবং প্রতিবেশীরা।