রনজি খেলোয়াড় ও আম্পায়ার ধরমবীর পাঠক নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন। ভোরবেলা বাড়ি থেকে বেরিয়ে তিনি আর ফিরে আসেননি। তাঁর ছেলে কপিল পাঠক নিকটবর্তী পুলিশ স্টেশনে নিখোঁজ ডায়রি করেছেন। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

এক সর্বভারতীয় ক্রিকেট সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ধরমবীরের স্মৃতিভ্রংশের অসুখ রয়েছে। কপিল পুলিশের কাছে জানিয়েছেন, তাঁর বাবা ঘুম থেকে উঠে সকাল ছ’টা নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়েছেন। তখন বাড়ির কোনও সদস্যই ঘুম থেকে ওঠেননি। ঘুম ভাঙার পরে সবাই দেখেন, ধরমবীর তাঁর ঘরে নেই।

কপিল জানিয়েছেন, ধরমবীরের সঙ্গে কোনও পরিচয়পত্র ছিল না। তাঁর সঙ্গে ওয়ালেটও ছিল না। গোটা ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কিত ধরমবীরের পরিবার। জানা গিয়েছে, ধরমবীরের স্মৃতিভ্রংশের অসুখ খুব গুরুতর কিছু নয়। তিনি রোজই কাগজ পড়তেন। ভারতের ইংল্যান্ড সফরের খুঁটিনাটি খবর তিনি রাখছিলেন বলে জানান কপিল। ধরমবীর রনজি ট্রফিতে খেলোয়াড় হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন। পরে তিনি পেশাদার আম্পায়ায়ার হিসেবেও স্বীকৃতি পান। সর্বভারতীয় আম্পায়ারদের প্যানেলের সদস্য ছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এর আগে এস রামস্বামী নামের প্রাক্তন আম্পায়ারও নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন। তিনি আর ফিরে আসেননি। আপাতত, ধরমবীরের ফেরার অপেক্ষায় তাঁর পরিবারের সদস্যরা।