তেমন কোনও বাধকতা নেই এই প্রতিবেদন পড়ার, যদি না আপনি হরর মুভি ফ্রিক হন। আর হরর মুভির ভক্ত হলে অবশ্যই পড়ুন এই প্রতিবেদন। কারণ আপনার জন্য ২০১৭-এর এপ্রিলে হলিউড যেসব অফার রেখেছে, তাকে সাদা বাংলায় ‘ধামাকা’ ছাড়া অন্য কিছুই বলা যায় না।

২০১৭-য় যে সব হরর ছবি মুক্তি পেতে চলেছে, তার একটা বড় অংশই পূর্বতন কোনও কাল্ট হরর-এর সিকোয়েল। তবে এর বাইরে বেশ কিছু আনকোরা ছবিও রয়েছে। কে বলতে পারে, এগুলিরই কোনও কোনওটা কাল্ট হয়ে উঠবে না!

এক ঝলক দেখে নেওয়া যাক, ২০১৭-এর বাকি মাসগুলোয় মুক্তি পেতে চলা উল্লেখযোগ্য হলিউড হরর ছবিগুলিকে।

• অ্যামিটিভিল: দ্য অ্যাওয়েকেনিং— ক্ল্যাসিক হরর ফ্র্যাঞ্চাইচির ১৪তম কিস্তি। পরিচালনা ফ্র্যাঙ্ক খালফুনের। এক তরুণী নতুন বাড়িতে যাওয়ার পরে ঘটতে থাকে হাড় হিম করা সব ঘটনা। তার মা, বোন ও ভাইকে নিয়ে চরম বিপদে পড়ে তরুণীটি।

ট্রেলার দেখুন

• অ্যানাবেল: ক্রিয়েশন— ২০১৪-এর সুপারহিট ছবির প্রিকোয়েল বলা যায়। কুখ্যাত ভূতুড়ে পতুলের উৎস সন্ধানে এবার ‘কনজিউরিং’ ফ্র্যাঞ্চাইজি। আদরের মেয়েটির আকস্মিক মৃত্যুর ২০ বছর পরে এক পুতুল-নির্মাতা ও তাঁর স্ত্রী তাঁদের বাড়িতে এক সন্ন্যাসিনী ও কিছু আনাথ বাচ্চাকে জায়গা দেন। তার পরে শুরু হয় অতি ভয়ঙ্কর কাণ্ড। পরিচালনায় ডেভিড স্যান্ডবার্গ।

ট্রেলার দেখুন

• পোলারয়েড— দুই তরুণী হঠাৎই খুঁজে পায় এক বেওয়ারিশ পোলারয়েড ক্যামেরা। এর মাধ্যমে তারা জানতে পারে এক ভয়াবহ অতীতের কথা। পরিচালক লার্স ক্লেভবার্গ তাঁর জনপ্রিয় স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিটিকেই এবারে পূর্ণদৈর্ঘ্যে নিয়ে আসছেন।

ট্রেলার দেখুন

• ইট— স্টিফেন কিংয়ের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রচনার সিনে-রূপ। একদল কিশোর একটা ভয়ঙ্কর কিছুর মোকাবিলা করে। কিন্তু বড় হয়ে তার আবার কিছু অসম্ভবের পাল্লায় পড়েছে, বুঝতে পেরে একত্র হয়। সেই অজানা ভয়ঙ্কর এক ক্লাউনের বেশ ধরে অবতীর্ণ হয়। বাকিটা খুব সুখকর গল্প নয়। পরিচালনা অ্যান্ডি মাশচিয়েত্তির।

ট্রেলার দেখুন

• ফ্রাইডে দ্য থার্টিন্থ— রহস্যময় খুনি জেসন আবার ফিরে আসছে এই ছবিতে। ক্লাসিক হরর ছবির পুনর্নির্মাণে যুক্ত হচ্ছে নতুন ট্রিটমেন্টও। ব্রেক আইজনারের এই ছবিতে উত্তর মিলতে পারে এই প্রশ্নের— জেসনকে কেন হত্যা করা যায় না।

ট্রেলার দেখুন