মহারাষ্ট্রের গণপতি উৎসব আজ ভারতের সর্বত্রই পালিত হয়। সিদ্ধিদাতা গণপতিকে এদিন বরণ করে সৌভাগ্যকে আহ্বান করেন মানুষ। এ বছরের গণেশ চতুর্থীকে বিশেষ গুরত্বপূর্ণ বলে চিহ্নিত করেছে জ্যোতিষ শাস্ত্র। শাস্ত্রবিদরা জানাচ্ছেন, গত ৫৮ বছরে এমন তিথি-নক্ষত্র সমাবেশ ঘটেনি। জেনে নেওয়া যেতে পারে ঠিক কী কারণে ২০১৭-এর গণেশ চতুর্থীকে এমন গুরুত্বপূর্ণ বলছেন তাঁরা।

• এমনিতেই গণেশ চতুর্থী এক অতি পবিত্র তিথি। তার উপরে ৫৮ বছর পরে এই দিন শনি তাঁর অবস্থান বদল করছেন। এদিন শনি সরে যাচ্ছেন বৃশ্চিকের ঘরে।

• ১৯৫৯ সালে শেষ এমন সমাপতন ঘটেছিল। এ বছর ২৫ অগস্ট শনির এই ঘর পরিবর্তন শুরু হবে।

• শনির বৃশ্চিকে গমন বিশেষ কিছু পরিবর্তনকে সূচিত করে। এর ফলে সমৃ্দ্ধি শুরু হয় বলেই মনে করে ভারতীয় জ্যোতিষ।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

• ২৫ অগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর— এই ১০ দিন গণপতি পূজা। এই অবসরে গণপতির কাছে বিশেষ প্রার্থনা নিয়ে আসতে পারে নীরোগ জীবন ও আর্থিক সমৃদ্ধি।

• একই সঙ্গে এই ১০ দিন শনিদেবের বিশেষ উপাসনাও বিধেয়। শনিবার কালো পোশাক পরে তাঁর পূজা করলে এই অবকাশে শনির কৃপা লাভ সম্ভব বলে জানাচ্ছেন জ্যোতিষীরা।