যারা বলিউড ছবি দেখতে অভ্যস্ত ‘রেভ পার্টি’ শব্দটার সঙ্গে তাঁরা বেশ পরিচিত। একটা সময় ছিল, যখন বাঙালি ‘হেরোইন’ ও ‘ব্রাউন সুগার’ শুনলে আঁতকে উঠত। তিন দশক পেরিয়ে এই মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গে ড্রাগ-সাম্রাজ্য যে কতটা বিস্তৃত হয়েছে, সেটা সাধারণ মানুষের কল্পনারও বাইরে। কিছুদিন আগেই ড্রাগ পাচারের অভিযোগে, কলকাতার একটি নামজাদা নাইট ক্লাবের ডিজে-কে গ্রেফতার করা হয়। ধরা পড়ে আরও তিন সঙ্গী। তাদের মধ্যে একজন ছিল কলকাতার একটি সুপ্রসিদ্ধ কলেজের ছাত্র। 

হয়তো এই পর্যন্ত পড়ে অনেকে ভাববেন, এই নাইটক্লাব-লাউঞ্জ-ডিস্কো এবং কলেজ ক্যাম্পাসগুলিই ড্রাগের আখড়া কারণ, ড্রাগের নেশা তো আর সবার পকেটে সয় না! কিন্তু ওই মার্কামারা ‘আপমার্কেট’ ঠেকগুলিতে আসলে আসমুদ্রহিমাচল-বিস্তৃত ড্রাগস্রামাজ্যের ১০ শতাংশ বা ২০ শতাংশ দেখা যায়। তা-ও জনসমক্ষে নয়, ডিস্কের অন্ধকার কোনায়, অ-নেশাগ্রস্তদের চোখ এড়িয়ে। 

ছবি সৌজন্য: আড্ডাটাইমস

ওদিকে ভদ্দরনাগরিকদের পাড়ায় পাড়ায়, গলিতে গলিতে, করপোরেশনের জলের লাইনের মতো কীভাবে শাখা-প্রশাখায় বিস্তৃত হয়েছে ড্রাগস-লাইন, সেটা জানলে শিউরে উঠতে হয়। সেখানে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়পক্ষই মধ্যবিত্ত-নিম্নমধ্যবিত্ত। ক্রেতাদের মধ্যে কেউ খুঁটে খায়, কেউ বা লোক ঠকিয়ে জোগাড় করে দামি ড্রাগস কেনার টাকা। কারও মডেল-এসকর্ট গার্লফ্রেন্ড নিজেই নেশাগ্রস্ত। আলু-পটল-সাবান-শ্যাম্পুর পাশাপাশি ড্রাগসের জন্যেও বরাদ্দ থাকে টাকা। 

সে এক আশ্চর্য গা ছমছম জগৎ। চোখের সামনেই রয়েছে, অথচ যেন নেই। নির্দিষ্ট কিছু ফিল্টারেই ধরা পড়ে শুধু। আড্ডাটাইমস-এর নতুন ওয়েব সিরিজ ‘দ্য মাশআপ মাঙ্কিজ’ যেন তেমনই একটা ফিল্টার! তিন তরুণ একটি হাঘরে রেভ পার্টিতে কোনও অচেনা ড্রাগের নেশা করে। তার পরে একজন রাতারাতি সাতমাসের অন্তঃসত্ত্বা, একজন ‘টোয়ালাইট’-সিরিজের অ্যালিসের মতো ভবিষ্যতের ফ্ল্যাশ সিকোয়েন্স দেখতে পায় আর অন্যজনের শারীরিক প্রতিক্রিয়াশীলতা বা সহজ ভাষায় লোক ঠেঙানোর ক্ষমতা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। 

এর পরে কী হয়, সেটা নিয়েই এই ওয়েব সিরিজ। যে করে হোক খুঁজে পেতে হবে কী সেই ড্রাগের উৎস, এই প্রতিক্রিয়ার অ্যান্টিডোট কি মিলবে কখনও? নির্ঝর মিত্র পরিচালিত ও রাজীব মেহরা প্রযোজিত এই ডার্ক কমেডির ৬টি ওয়েবিসোডের স্ট্রিমিং শুরু হয়েছে কিছুদিন আগেই, আড্ডাটাইমস-এর ওয়েবসাইটে। বিষয়বস্তু উদ্ভট এবং অন্ধকারময় হলেও হাস্যরস কিন্তু তীব্র। যাঁরা আড্ডাটাইমস-এর সাবস্ক্রিপশন নিয়েছেন, তাঁরা অন্যান্য ওয়েব সিরিজগুলির পাশাপাশি এই সিরিজটিও দেখতে পাবেন। 

যাঁদের সাবস্ক্রিপশন নেই, তাঁরা বিনামূল্যে দেখতে পাবেন প্রথম ওয়েবিসোডটি। নীচে রইল ‘দ্য মাশআপ মাঙ্কিজ’-এর ট্রেলার—