বন্যা কতটা সর্বগ্রাসী হতে পারে, এবছর তার সাক্ষী থেকেছে অসম, বিহার, গুজরাত, পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্যগুলি। বাড়ি ঘর, রাস্তা, সেতু— জলের তোড়ে খড়কুটোর মতো ভেসে গিয়েছে সবকিছু। 

কিন্তু, এবছরের বন্যার সম্ভবত সবথেকে ভয়ঙ্কর ছবিটা ধরা পড়েছে বিহারের অররিয়া জেলায়। ঘটনাটি ঘটে গত ১৩ অগস্ট। স্থানীয় এক বাসিন্দার তোলা সেই ভিডিওই এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

দেখুন সেই ভিডিও, সৌজন্যে- ইউটিউব

ওই ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে, একটি সেতু বন্যার জলের তোড়ে মাঝখান থেকে অর্ধেক ভেঙে গিয়েছে। বিপজ্জনকভাবে সেতুর উপরের রাস্তা কোনওক্রমে ঝুলছিল। ভাঙা অংশের দু’পাশে প্রচুর গ্রামবাসী দাঁড়িয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে কয়েকজন ঝুঁকি নিয়েই হেঁটে ঝুলে থাকা অংশ পেরিয়ে সেতুর অন্যদিকে চলে যাচ্ছিলেন। এক মহিলা দুই বালককে নিয়ে একইভাবে সেতুর এক পাশ থেকে অন্য পাশে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তখনই ঘটে ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা। জলের তোড়ে ওই সেতুর ঝুলে থাকা অংশ আচমকাই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে জলের প্রবল স্রোতে ভেসে যান তিন জন। জলের স্রোত এতটাই ছিল যে, কেউ তাঁদের বাঁচানোর চেষ্টা করারও সুযোগ পাননি।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, জলে ভেসে যাওয়া ওই মহিলা-সহ দুই বালকেরই মৃত্যু হয়েছে। যার জেরে বিহারে এবছর বন্যায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৯৮।