মুখে বলছেন ছাত্র সংগঠনে কলেজে কলেজে কোনও বহিরাগতরা থাকবেন না। তৃণমূল ছাত্র পরিষদ করবে পড়ুয়ারাই। কিন্তু এখনও যোগ্য নেতা না পেয়ে ‘বুড়ো খোকাদের’ হাতেই সংগঠনের দায়িত্ব রাখতে বাধ্য হচ্ছে রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রধানের পদ থেকে জয়া দত্তকে সরিয়ে দেওয়ার পর এখনও কোনও সভাপতি খুঁজে পেলেন না তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠা দিবসের মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করে দিয়েছিলেন ১৫ দিনের মধ্যে তাঁর তৈরি করা একটি কমিটি বেছে নেবে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি কে হবে।

শনিবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তাপস রায়, বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়রা ছাত্রনেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসলেও কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারলেন না।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

আপাতত পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে চেয়ারম্যান ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে কো-চেয়ারম্যান করে কমিটি তৈরি হয়েছে। তাঁরাই দেখবেন ছাত্র সংগঠনের কাজকর্ম।

একই সঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন কলেজে ছাত্র সংগঠনে বহিরাগতরা কোনও ভাবেই থাকতে পারবে না। সেখানে শুধু ছাত্ররাই থাকবে। তবে যে সব ছাত্র দীর্ঘদিন ধরে কলেজে বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা না দিয়ে বা অন্য পদ্ধতিতে থেকে যাচ্ছেন ও ছাত্র সংগঠন করছেন, তাদের ক্ষেত্রে কী হবে তা নিয়ে মন্তব্য এড়িয়ে যান পার্থ।