জিও-কে ঘিরে এখন এমন পরিস্থিতি যে রীতিমতো টাগ অফ ওয়ার চলছে। যে দিক দিয়ে পারছে জিও-র উপর আক্রমণ শানাচ্ছে। কিছুদিন আগেই জিও-র বিরুদ্ধে ট্রাই-এর নিয়ম ভাঙার অভিযোগ এনে টিডিস্যাট-এ মামলা করেছে এয়ারটেল। এই মামলায় মূলত জিও-র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তুলে ট্রাইকেই মূলত কাঠগড়ায় দাড় করিয়েছে সুনীল ভারতী মিত্তলের মোবাইল সংস্থা। এয়ারটেলের অভিযোগ ট্রাই-এর মদতেই নিয়ম বিরুদ্ধভাবে ‘ফ্রি অফার’ চালিয়ে যাচ্ছে জিও। পরিণামে ট্রাই-এর কাছে জবাবদিহিও চেয়েছে টিডিস্যাট। এই নিয়ে ৬ জানুয়ারি ফের শুনানি হওয়ার কথা। 

আরও পড়ুন... 

জিও-কে ধাক্কা? মাঝপথেই বাতিল হতে পারে জিও-র ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার অফার’? 

মার্চের পরে রিলায়েন্স জিও-তে আরও অফার! কী বলছে সূত্র?

এই ঘটনার পরেই ট্রাই এখন নড়েচড়ে বসেছে। ‘ফ্রি অফার’ নিয়ে জিও-র কাছে জবাবদিহি চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে তারা। এই নোটিশে সাফ জানানো হয়েছে নিয়ম ভেঙে কীভাবে ‘ফ্রি অফার’-এর ঘোষণা করা শুধু নয়, তা চালিয়ে যাওয়ার হিম্মত দেখাচ্ছে জিও। ট্রাই-এর এই কড়া ভাষায় লেখা চিঠিতে চিন্তায় পড়ে গিয়েছে খোদ রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিও। ২৯ ডিসেম্বরের মধ্যে এই চিঠির জবাব দিতে জিও-কে নির্দেশ দিয়েছে ট্রাই। এই জবাব মনঃপূত না হলে ঘোর বিপদ অপেক্ষা করেছ জিও-র ‘ফ্রি অফার’-এ। সেরকম হলে ৩১ ডিসেম্বরের পরই জিও-কে তাদের ‘ফ্রি অফার’ প্রত্যাহার করতে হতে পারে। ফলে, ১ জানুয়ারি থেকে জিও কর্ণধার মুকেশ অম্বানী যে ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার অফার’ চালুর কথা ঘোষণা করেছিলেন, তা আপাতত স্থগিত রাখতে হবে রিলায়েন্সকে। ৬ জানুয়ারি টিডিস্যাটে এয়ারটেলের করা মামলায় যে শুনানি হওয়ার কথা, তাতে আর ট্রাইকে অস্বস্তির মধ্যে নাও পড়তে হতে পারে। তবে, ট্রাইকে জিও কী উত্তর দেয় এবং ট্রাই তার বিনিময়ে কী অবস্থান নেয় তার উপরই নির্ভর করছে সমস্ত বিষয়। 

ট্রাই-এর নিয়ম অনুযায়ী টেলিকম পরিষেবা দেওয়া কোনও সংস্থা ৯০ দিনের বেশি ‘ফ্রি অফার’ দিতে পারে না। সেপ্টেম্বরে ‘ফ্রি ওয়েলকাম অফার’ নিয়ে বাজারে এসেছে জিও। সেই থেকে আজ পর্যন্ত গ্রাহকদের বিনামূল্যেই পরিষেবা দিচ্ছে। নতুন ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার ফ্রি অফার’-এর মাধ্যমে, ২০১৭-র মার্চ পর্যন্ত এই বিনামূল্যে পরিষেবা চালিয়ে যাওয়ার কথাও জিও ঘোষণা করেছে। এয়ারটেল, ভোডাফোন এবং আইডিয়া-র মতো অন্য মোবাইল পরিষেবা দেওয়া সংস্থাগুলির অভিযোগ, ট্রাই-এর নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই ‘একচেটিয়া বাজার’ ধরার ষড়যন্ত্র করেছে। ইতিমধ্যেই, এই অভিযোগ খারিজ করে ট্রাই এয়ারটেল ও ভোডাফোনকে কয়েক হাজার কোটি টাকা জরিমানাও করেছিল। টিডিস্যাটের মামলায় সেই জরিমানা নিয়েও ট্রাইকে তোপ দেগেছে এয়ারটেল।