ভোট ব্যবস্থার প্রতি বীতশ্রদ্ধ হয়েই কি মানুষের বদলে পশুদের ভোটে দাঁড় করালেন মার্কন যুক্তরাষ্ট্রের ভেরমন্টের ফেয়ার হ্যাভেন শহরের বাসিন্দারা? সম্প্রতি সেখানকার মেয়র নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচিত হল এক ছাগল। এখন সে-ই এই শহরের সাম্মানিক মেয়র।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘ফক্স নিউজ’-এর প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, লিঙ্কন নামের এই নুবিয়ান প্রজাতির তিন বছর বয়সি ছাগলটিকে তাঁদের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করেছেন ফেয়ার হ্যাভেনের বাসিন্দারা। আগামী এক বছের লিঙ্কনই মেয়রের পদ অলঙ্কৃত করবে।

জানা গিয়েছে, এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল ১৫টি পশু। অন্যান্য পশুদের হারিয়ে লিঙ্কনই মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হয়। 

এই নির্বাচনে মোট ৫৩টি ভোট পড়েছিল। লিঙ্কন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্যামি ভিগার নামের একটি কুকুরকে পরাজিত করে। সে মোট ১৩টি ভোট পায়। স্যামি ভিগারের ভাগ্যে জোটে ১১টি ভোট। 

মেয়র হিসেবে লিঙ্কন আগামী এক বছর শহরের প্রধান অনুষ্ঠানগুলিতে উপস্থিত থাকবে। প্রসঙ্গত, লিঙ্কনের মালিক ওই শহরের একটি স্কুলের গণিত শিক্ষক।  

ফেয়ার হ্যাভেনের টাউন ম্যানেজার জো গুন্টার জানিয়েছেন, তিনি এই আইডিয়া পেয়েছিলেন মিশিগানের ওমেনা নামের একটি ছোট শহরের কাছ থেকে। সেখানে একটি বিড়ালকে নির্বাচন করা হয়েছিল নগর-প্রশাসক হিসেবে। এই নির্বাচনের মাধ্যমে যে অর্থ সংগ্রহ করা হয়েছিল, তা একটি খেলার মাঠের উন্নয়ন কল্পে ব্যবহৃত হয়। গুন্টারের মতে, এই ধরনের নির্বাচনে শহরের শিশুদের মনে উদ্দীপনা সঞ্চারিত হয়। নগর প্রশাসনের প্রতি তারা আগ্রহী হয়ে ওঠে।