জুলাইতে জিএসটি চালু হওয়ার পর থেকে একটু একটু করে রাজস্ব আদায় কমছে সরকারের। গত ডিসেম্বরে সব থেকে কম ৮০ হাজার ৮০৮ কোটি টাকা আদায় হয়েছে। সেপ্টেম্বরে যেটা ছিল ৯৫ হাজার ১৩১ কোটি টাকা। 

কর আদায় কমতির দিতে যেতে শুরু করার পরে গত নভেম্বরে জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে ২০০ পণ্যের কর কমানো হয়। নিত্য প্রয়োজনীয় ১৭৮টি পণ্যের কর সর্বাধিক ২৮ শতাংশ থেকে ১৮ শতাংশে নিয়ে আসা হয়।

বৃহস্পতিবার কাউন্সিলের ২৪তম বৈঠকে আরও ৪৯টি পণ্যের কর কমানো হয়েছে। তবে পেট্রোল, ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনা নিয়ে আলোচনায় কোনও ঐকমত্য হয়নি। সন্ধ্যা ছ’টায় শুরু হয় বৈঠক। চলে প্রায় পৌনে সাতটা পর্যন্ত। বৈঠক থেকে বেরিয়ে উত্তরাখণ্ডের অর্থমন্ত্রী প্রকাশ পন্থ জানান, মোট এদিন ৪৯টি পণ্যের কর কমানো হয়েছে। এর মধ্যে ২৯টি হস্তশিল্পজাত পণ্যকে শূন্য করের আওতায় আনা হয়েছে।

বৈঠক শেষ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছেন, আগামী ২৫ জানুয়ারি থেকে নতুন হারে জিএসটি প্রয়োগ হবে।