কিছুদিন আগেই নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে মন্তব্য করার সময় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে দিয়েছিলেন। বলে দিয়েছিলেন, ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য ধোনির পরিবর্ত খোঁজার অপশন এখনও খোলা। তবে বিরাট কোহলি সাফ জানিয়ে দিলেন, ধোনিকে দীর্ঘমেয়াদি ভিত্তিতেই জাতীয় দলে ভাবা হচ্ছে।

বর্তমানে মোটেই নিজের সেরা ছন্দে নেই ধোনি। ৩৬ বছরের কিংবদন্তি ক্রিকেটার আপাতত অতীতের ছায়া। তর্কাতীতভাবে সর্বকালের সেরা ফিনিশার শেষ ১৩ ম্যাচে ২৭.৮০ গড়ে মাত্র ২৭৮ রান করেছেন। চলতি বছরের শুরুটা অবশ্য ভালই করেছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৩৪ রান করে মাতিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। আইপিএল-এ বেশ কিছু ছোট ছোট গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেললেও সেভাবে নজর কাড়তে পারেননি।

এরপর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ছন্দহীন ছিলেন তিনি। ক্যারিবিয়ান সফরে তৃতীয় ওয়ানডে-তে অর্ধশতরান করে দলকে জিতিয়েছিলেন তিনি। চতুর্থ ম্যাচে ১১৪ বলে শ্লথগতির ৫৪ রান করে প্রচণ্ড সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। ১৯০ রান তাড়া করতে গিয়েও ভারত হেরে গিয়েছিল সেই ম্যাচে।

তবে পাল্লাকেল্লেতে ধোনি মিডিয়ার সামনে বলে দেন, ‘‘ধোনি বর্তমানে মোটেও টেস্ট খেলেন না। টেস্ট সিরিজের মাঝের বিরতি ফ্রেশ থাকতে সাহায্য করবে ধোনিকে। এটা মোমেন্টাম আনার ক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী। বাকি মরশুমেও এটা ওকে সাহায্য করবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য এটা ভীষণই উপযোগী।’’ এরপরে কোহলি বলে দেন, ‘‘এমএস সহ দলের প্রত্যেকের কাছেই সুযোগ থাকছে দীর্ঘ সময় জাতীয় দলে থাকার।’’