তিনি এখন অনেক পরিণত। বাইশ গজে মেজাজ হারানোর পরিবর্তে ঠাণ্ডা থাকার চেষ্টা করেন। তবে ক্রিকেট থেকে স্বভাবজাত আগ্রাসন ছেড়ে দেননি। বিরাট কোহলি কিন্তু মাঠের মধ্যেই মেজাজ হারিয়ে তুমুল বিতর্কে জড়িয়েছিলেন ছ’বছর আগে। ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়েছিলেন বিরাট, জাতীয় দলের সঙ্গে। সেই সফরেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিডনি টেস্টে দর্শকদের দিকে 'মধ্যমা' দেখিয়েছিলেন। যার পরেই প্রচারমাধ্যমে ঝড় ওঠে। সেই ঘটনা নিয়ে এই প্রথম মুখ খুললেন ভারত অধিনায়ক।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

উইজডেনের এক সাক্ষাৎকারে কোহলি সেই বিতর্কিত প্রসঙ্গে মুখ খুলে জানান, ‘‘সিডনি টেস্টে অস্ট্রেলীয় দর্শকদের মধ্যমা দেখিয়েছিলাম। পরের দিন ম্যাচ রেফারি রঞ্জন মধুগালে আমাকে নিজের ঘরে ডেকে পাঠান। তিনি আমাকে সরাসরি প্রশ্ন করেন, মাঠে কী হয়েছিল। জবাবে আমি জানাই, কিছুই হয়নি। এর পরে উনি সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় আমার ছবি দেখান। এরপর আমি ওঁকে অনুরোধ জানাই যাতে আমাকে নিষিদ্ধ না করা হয়। উনি খুব ভাল মনের মানুষ ছিলেন। আমার বয়স কম ছিল। কম বয়সে এমন ভুল হয়ে যায়। এমন বিবেচনা করেই উনি নির্বাসনের শাস্তি দেননি।’’ ম্যাচ ফি-র ৫০ শতাংশ কেটে নিয়েই ছাড় দেওয়া হয় কোহলি।

সেই সফরে অবশ্য ব্যাট হাতে দারুণ ফর্মে ব্যাটিং করেছিলেন তিনি। ঘটনা কী হয়েছিল? জানা গিয়েছে, সিডনি টেস্টে বাউন্ডারি লাইনের ধারে ফিল্ডিং করছিলেন বিরাট। সেই সময় বেশ কিছু অস্ট্রেলীয় সমর্থক অশ্লীল গালিগালাজ করছিলেন কোহলিকে। মেজাজ হারিয়ে কোহলি দর্শকদের সরাসরি মধ্যমা দেখান। গোটা ঘটনাটি ভিডিও ক্যামেরায় ধরাও পড়ে।