ষোড়শ শতকের ফরাসি ভবিষ্যকথক নস্ত্রাদামুসের প্রফেসি নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। অতি জটিল ভাষায় লেখা সেই সব ভবিষ্যদ্বাণীর কতটা মিলেছে আর কতটা মেলেনি, তাই নিয়ে মিডিয়া নিরন্তর মেতে থাকে বাহাস-বিতর্কে। অনেকে তো আবার এ কথাও বলেন, কোনও কথাই নাকি নস্ত্রাদামুস বলেননি। তাঁর এই সব প্রফেসি কারোর মতে একেবারেই ফক্কা, কারোর মতে তা নির্যস সত্যি। সেই বিতর্ক বহমান থাকুক, আমরা এই ফাঁকে জেনে নিই, নস্ত্রাদামু স্পেশালিস্টরা কী জানাচ্ছেন ২০১৭ সালটি সম্পর্কে।

• ২০১৭ সালটি ইতালির জন্য একেবারেই শুভ নয়। এই বছর ইতালির অর্থসংকট তীব্র আকার নেবে। বেকারত্ব বাড়বে। ব্যাঙ্ক ব্যবস্থা গোল্লায় যাবে এবং এর প্রতিফলন দেখা দেবে বিশ্ব-অর্থনীতিতে।

• এই বছরে ইউক্রেন ও রাশিয়ার সম্পর্কের উন্নতি ঘটবে। কিন্তু কীসের ভিত্তিতে এমনটা ঘটবে, তা জানা যাচ্ছে না।

• সুপার পাওয়ার হওয়ার পথে চিন আরও খানিকটা এগিয়ে যাবে ২০১৭ সালে। তার অর্থনৈতিক সমস্যাগুলিকে ঝেড়ে ফেলে চিন এই বছরেই বৃহৎ শক্তি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে।

আরও পড়ুন
নস্ত্রাদামুস নাকি মোদীর বিষয়ে ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন, মন্ত্রীর টুইটে সেই বার্তা
পাকিস্তানের ধ্বংসের কথা বলেছিলেন নস্ত্রাদামুস...

• ২০১৭-তেই শুরু হতে পারে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে মহাকাশ ভ্রমণ। এর পরের দু’বছরের মধ্যে চাঁদে গড়ে উঠতে পারে পর্যটন শিল্প।

• এই বছরে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিভাজন শেষ হবে। উত্তরের সুপ্রিমো কিম জোং-উনের জন্য বছরটা খারাপ। এমনকী তাঁর ক্ষমতাও চলে যেতে পারে।

• ২০১৭ পরিবেশ দূষণের এক শীর্ষবছর হয়ে থাকবে। বিশ্ব উষ্ণায়ন এতটা বীভৎস আকার নেবে যে, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে তা যুদ্ধ পরিস্থিতির আকৃতি নেবে।

• বিকল্প শক্তির সন্ধানে মানুষ আরও মনোযোগী হয়ে ২০১৭-এ। সৌরশক্তির ব্যবহার ব্যাপক আকার নেবে।

এই ভবিষ্যদ্বাণী কতটা নস্ত্রাদামুসের এর কতটা তাঁর ব্যাখ্যাকর্তাদের, তা নিরূপণ করা দুরূহ। তাই বর্তমান প্রতিবেদন এর সত্যসত্যের দায়মুক্ত।