সচিন তেন্ডুলকর মানে ‘ক্রিকেটের ঈশ্বর’। শুধু সচিনের বাবা-মা নয় গোটা বিশ্ব একবাক্যেই স্বীকার করে সচিন শুধু ক্রিকেটের জন্যই জন্ম নিয়েছেন। এহেন সচিনের ক্রিকেটের প্রতি সততা নিয়ে কেউ কোনও দিনই প্রশ্নই তুলতে পারেনি।

কিন্তু, ক্রিকেটের এমন এক মহান সাধক একদিন মাঝপথেই জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন। সকলে মনে করেছিলেন অধিনায়ক হিসাবে একের পর এক ম্যাচ হারায় হতাশ হয়ে পড়েছিলেন, তাই অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। কিন্তু, পরবর্তীকালে কানাঘুষোয় শোনা গিয়েছিল সচিনের অধিনায়কত্ব ছাড়ার পিছনে অন্য কারণ ছিল। আর সেই কারণের নাম ‘মহম্মদ আজহারউদ্দিন’। কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে মহম্মদ আজহারউদ্দিনের জীবন নিয়ে তৈরি হওয়া ছবি। এই ছবি থেকেই সচিনের অধিনায়কত্ব ছাড়ার কারণের বিতর্ক মাথা চাড়া দিয়েছে। 


সচিন যখন অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন, তখন জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন ঘটছিল আজহারউদ্দিনের। বিসিসিআই-এ সেসময় যথেষ্টই প্রভাবশালী ছিলেন আজহারউদ্দিনের মেন্টর রাজ সিংহ দুঙ্গারপুর। সেসময় জাতীয় দলের অন্যতম সদস্য ও সচিনের এককালের বন্ধু বিনোদ কাম্বলি সম্প্রতি দাবি করেছেন আজহারকে যেভাবে জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তনের জন্য চাপ তৈরি করা হয়েছিল তাতে ক্ষিপ্ত ছিলেন সচিন।