আগামী শুক্রবার বন্‌ধ। ২ সেপ্টম্বর দেশ জুড়ে বন্‌ধ ডেকেছে সেন্ট্রাল ট্রেড ইউনিয়নস এবং অল ইন্ডিয়া ট্রেড ইউনিয়নস কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রী বন্দারু দত্তাত্রেয় দুই সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক করে বন্‌ধ প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছেন। তবে গত শনিবারের বৈঠকে বরফ গলেনি। দুই সংগঠনের পক্ষেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, কেন্দ্রের আশ্বাসে ভরসা রাখছে না তারা। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার দেশে বন্‌ধ পালিত হচ্ছেই।

তবে এই রাজ্যে বন্‌ধ যাতে প্রভাব ফেলতে না পারে তার জন্য কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। তৃণমূল কংগ্রেস দলীয়ভাবে ইতিমধ্যেই বন্‌ধ ব্যর্থ করার আবেদন জানিয়ে প্রচারাভিযানে নেমেছে। এর পাশাপাশি সরকারিভাবেও বন্‌ধ ব্যর্থ করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, কর্মনাশা বন্‌ধ ব্যর্থ করতে কড়া হাতে মোকাবিলা করবে রাজ্য সরকার।

বিরোধী আসনে থাকার সময়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহু কর্মনাশা বন্‌ধের ডাক দিলেও শাসক মমতা প্রথম থেকেই বন্‌ধের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে আসছেন। এবারের বন্‌ধ ব্যর্থ করতেও রাজ্য সরকার অনমনীয় মনোভাব নিয়েছে। সরকারি কর্মীদের ওই দিন কাজে যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক করার পাশাপাশি পরিবহণ বিভাগও যাতে শুক্রবার বেশি করে বাস চালায় সে ব্যাপারে উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।