শেষমেশ বন্ধ হয়েই গেল। বাড়ি থেকে না বেরিয়েও বন্ধুদের সঙ্গে দেদার আড্ডা দেওয়ার সেই অ্যাপ— ইয়াহু মেসেঞ্জার।

১৯৯৮ সালের ৯ মার্চ যাত্রা শুরু করেছিল এই মেসেঞ্জার অ্যাপ। দীর্ঘ ২০ বছর পরে, আজ চিরতরে বন্ধ হয়ে গেল তার চলা। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

স্বাভাবিক ভাবেই মন ভার হয়েছে ৯০ দশকের সেই প্রজন্মের, যাদের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে ছিল ইয়াহু মেসেঞ্জার, যেমনটা এই প্রজন্মের হোয়াটসঅ্যাপ বা ফেসবুক মেসেঞ্জার। অনেক ইউজারই ‘RIP’ কমেন্ট করে বিদায় জানিয়েছে এই অ্যাপকে। 

বিশ্ব জুড়ে নানা সংবাদ মাধ্যমেই খবর প্রকাশিত হয়েছে ইয়াহু মেসেঞ্জারের শেষ দিনে। নিজেদের ওয়েবসাইটে ইয়াহু জানিয়েছে যে, বর্তমানে ‘কমিউনিকেশন’ প্রযুক্তিতে বেশ খানিকটা পিছিয়ে পড়েছে তাদের এই অ্যাপ। যে কারণে মেসেঞ্জার বন্ধ করে তারা ভবিষ্যতে নিয়ে আসবে আরও উন্নত ‘কমিউনিকেশন টুল’।


গ্রাফিক্স— অভিজিৎ বিশ্বাস

প্রসঙ্গত, সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইয়াহু থেকে জানানো হয়েছে যে, ইউজারদের আগামী ছ’মাস পর্যন্ত সময় দেওয়া হচ্ছে যাতে তারা তাদের চ্যাট হিস্ট্রি ডাউনলোড করে নিতে পারে। এবং, আজ কোনও ইউজার যদি মেসেঞ্জার ব্যবহার করতে চায়, সে ক্ষেত্রে তাকে রিডায়রেক্ট করা হবে ‘স্কুইরেল’ অ্যাপে।