SEND FEEDBACK

English
Bengali

দুর্দান্ত পরিকল্পনা। এ বার হোয়াটস অ্যাপেই করা যাবে টাকা লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | এপ্রিল ৪, ২০১৭
Share it on
ইউপিআই (ইউনিফায়েড পেমেন্টস ইন্টারফেস) পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে আর্থিক লেনদেনের বন্দোবস্ত করবে হোয়াটস অ্যাপ। অন্তত সেই রকমই পরিকল্পনা রয়েছে হোয়াটস অ্যাপ কর্তৃপক্ষের।

এই সময়কার সবচেয়ে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটস অ্যাপ। কিন্তু নিছক মেসেজ আদানপ্রদানের পাশাপাশি এ বার মানি ট্রানজ্যাকশনও করা যাবে এই অ্যাপে। একটি সর্বভারতীয় অর্থবিষয়ক দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তেমনটাই দাবি করা হচ্ছে।

জানা যাচ্ছে, ইউপিআই (ইউনিফায়েড পেমেন্টস ইন্টারফেস) পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে আর্থিক লেনদেনের বন্দোবস্ত করবে হোয়াটস অ্যাপ।  অন্তত সেই রকমই পরিকল্পনা রয়েছে হোয়াটস অ্যাপ কর্তৃপক্ষের। ডিজিটাল ট্রানজ্যাকশন বিশেষজ্ঞদের এই জন্য ভারতে নিয়োগ করার কথাও ভাবা হচ্ছে সংস্থার তরফে।

ইউপিআই হল একটি আন্তর-ব্যাঙ্ক বন্দোবস্ত। এই পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে কোনও ব্যাঙ্কের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে  অন্য ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে  চোখের নিমেষে টাকা ট্র্যান্সফার করা সম্ভব। সাময়িক ভাবে একটি অথেন্টিকেশন ক্রেডেন্সিয়াল প্রয়োজন হয় এই পদ্ধতিতে মানি ট্রানজ্যাকশনের জন্য। স্মার্টফোনে এই সুবিধা পাওয়া যায় (পিএসপি এবং ভীম অ্যাপের মাধ্যমে)। এ ছাড়াও ফিচার ফোনেও *৯৯# ডায়ালের মাধ্যমে ইউপিআই প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো যায়। হোয়াটস অ্যাপও এই প্রযুক্তিকেই কাজে লাগাবে বলে খবর।

বর্তমানে ডিজিটাল ট্রানজ্যাকশনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে জনপ্রিয় পেটিএম-এর মতো ডিজিটাল ওয়ালেটগুলি। এই মুহূ্র্তে ভারতে প্রায় ২ কোটি মানুষ পেটিএম-এর সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই)-এর সাম্প্রতিক গাইডলাইন এই ব্যবস্থার ভবিষ্যৎ নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে। আরবিআই-এর তরফে এ বার থেকে ওয়ালেটগুলির মধ্যে ইন্টারপোলারেবিলিটি (এক ওয়ালেট থেকে অন্য ওয়ালেটে টাকা আদানপ্রদান), জিরো ব্যালান্স সম্পন্ন অ্যাকাউন্টগুলিকে অটোমেটিক্যালি ক্লোজ করে দেওয়া, গ্রাহকদের কাছ থেকে কেওয়াইসি আদায় করা, ১২৫ কোটি টাকার মিনিমাম ক্যাপিটাল রাখা ইত্যাদি বৈশিষ্ট্য স‌ংযুক্ত করার শর্ত রাখা হয়েছে। এই সমস্ত শর্ত মানতে গেলে অনেক ডিজিটাল ওয়ালেটেরই গ্রহণযোগ্যতা কমবে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের।

এই জায়গাতেই ইউপিআই ব্যবস্থাকে কাজে লাগিয়ে ভারতে ডিজিটাল ট্রানজ্যাকশনের বাজার ধরতে চাইছে হোয়াটস অ্যাপ। বর্তমানে ভারতে ২০ কোটি মানুষ হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করেন। ডিজিটাল ট্রানজ্যাকশনের সুবিধা দিলে এই সংখ্যাটা আরও বাড়বে বলে আশা করছে সংস্থা।

WhatsApp Digital Transaction UPI
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -