General News
ভাইফোঁটায় বোনেদের হাতে অস্ত্র তুলে দিল এই শহরের ভাইয়েরা! কী অস্ত্র?
ভাইফোঁটার দিন এলাকার অধিকাংশ বোনই বাড়িতে ফেরেন। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই বোনেদের এই অভিনব উপহার তুলে দিলেন এলাকার ভাইয়েরা।
বোনেরা যমুনা, ভাইয়েরা কি যম? ভাইফোঁটার অনেক অজানা গল্প বলে চমকে দিন সবাইকে
বাঙালির চির-প্রিয় উৎসব ভাইফোঁটা। না, শুধু বাঙালির নয়, নানা নামে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে চলে ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার উৎসব। আর তার ইতিহাস নিয়ে রয়েছে নানা কাহিনি।
মা কালীর সামনে অন্নের স্তূপ রেখে পুজো! কেন এই বিশেষ উপাচার? দেখুন ভিডিও
বারোয়ারি এই পুজোয় প্রায় ৩২ বছর ধরে এই রীতি পালন করা হচ্ছে।
হাজার হাতের দুর্গা তো দেখেছেন। এবার দেখুন কলকাতার হাজার হাতের কালি...
দেশপ্রিয় পার্কের হাজার হাতের দুর্গার পরে এবার শহরে তৈরি হল হাজার হাতের কালি। দেখে নিন কোথায়...
সুন্দরবনের নারীদের জীবন কাহিনী নিয়ে ক্যানিং-এ সবচেয়ে বড় কালী
‘শুধুমাত্র বিশাল এক মাতৃমূর্তি দিয়ে মানুষকে আকৃষ্ট করা নয়, আমাদের লক্ষ্য সুন্দরবনের মা-মেয়েদের জীবনপঞ্জী সকলের সামনে তুলে ধরা। যাতে সকলের সাহায্যে আগামী দিনে এই সমস্যা থেকে আমরা সুন্দরবনকে মুক্ত করতে পারি...’
হাবাসকে হারাতে মা কালীর আশীর্বাদ নিলেন হিউম-পোশ্চিগা-দেবজিৎরা! দেখুন ভিডিও
আলোর রোশনাই, চোখ জুড়নো মণ্ডপ আর মানুষের ভিড় দেখে মুগ্ধ হিউম-পোশ্চিগারা। মণ্ডপে বেশ কিছুক্ষণ ছিলেন এটিকে-র ফুটবলাররা।
খনিতে পড়ে যাওয়া ট্রাক উদ্ধার করে দিয়েছিলেন খাদান কালী!
পরিত্যক্ত কয়লাখনিতে পড়ে যাওয়া কয়লা বোঝাই ট্রাক তুলতে যখন ইসিএলের সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়, তখন খাদান কালীই ছিল একমাত্র ভরসা।
কালী রূপে পুজো! আজ মা তারার ভোগে কী কী পদ থাকে? দেখুন ভিডিও
কালী পুজো উপলক্ষে ছাগ বলি দেওয়া হয়। বহু ভক্ত মানত করে বলি দিয়ে থাকেন। মা তারাকে শ্যামা রূপে পুজো দিতে দূরদূরান্তের বহু ভক্ত সকাল থেকে ভিড় জমিয়েছিলেন।
থিম-এ কালীপুজোয় মাতল উত্তর কলকাতাও! হাজির ছোট পর্দার বড় তারকারা
আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্রকৃতির ছোট-অতিছোট বিষয়গুলো যদি বড় আকারে দেখা দেয়, কেমন হবে-- এই ভাবনা থেকেই সুশান্ত দাস তৈরি করেছেন 'গার্ডেন ওয়ান্ডারল্যান্ড'।
কালীপুজোর আকাশে নিম্নচাপের মেঘ! জেনে নিন কোথায়, কখন বৃষ্টি
আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে এদিন জানানো হয়েছে, বঙ্গোপসাগরের উপরে ঘনীভূত ঘূর্ণিঝড়টি নিম্নচাপে পরিণত হয়ে বঙ্গোপসাগরের উপরে অন্ধ্র উপকূলের কাছে অবস্থান করছে।
সোনা, রুপো দরকার নেই! ধনতেরাসে ভাগ্য ফেরাতে ঝাঁটা কিনুন! কিন্তু কেন?
সোনা বা রুপো কিনতে পারছেন না? কুছ পরোয়া নেহি, কিনুন একটা ঝাড়ু। কিন্তু কেন?
দীপাবলিতেও অন্ধকারে থাকবে বাংলার এই প্রাচীন কালীমন্দির, প্রতিমাই যে নেই
দীপাবলির রাতে সর্বত্র আলোয় আলোয় কালী আরাধনা হবে। কিন্তু অন্ধকার থেকে যাবে রাজ্যের এই কালীমন্দির। না, প্রতিমাই নেই এই মন্দিরে।
কালীপুজো বা নতুন বছর, ভরসা ‘বুড়িমার চকলেট বোম’। কে এই বুড়িমা?
তিনি সবার বুড়িমা। বাবারও বুড়িমা, ছেলেরও বুড়িমা। আসলে বুড়িমার চকলেট বোম না হলে তো বাপ-ব্যাটা কারও কালীপুজোই জমত না। নতুন বছরকে স্বাগত জানাতেও আপনি হয়তো এই বাজিকেই বেছে নেবেন।
শক্তিসাধনার একই ডাকাতিয়া সুর বেজে চলেছে সমাজের সর্বত্র
‘বাঞ্ছারামের বাগান নাটকে জমিদারগিন্নি কালীর পদতলে মাথা ঠুকে বলছে, বুড়োটাকে নাও, মা! বাগানটা দাও, মা!’
পরিত্যক্ত প্লাস্টিক দিয়ে ২৫ ফুটের কালী প্রতিমা
পরিত্যক্ত, ব্যবহৃত প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি হয়েছে প্রায় ২৫ ফুটের এক কালী প্রতিমা৷সমাজে প্লাস্টিকের ক্ষতিকারক দিকটি তুলে ধরে সচেতনতার বার্তা দিতে এই প্লাস্টিকের ব্যবহার সকলের নজর কেড়েছে।সুবিশাল এই মুর্তি পুজিত হবেন মেদিনীপুর শহরেই ৷
দিওয়ালিতে চন্দননগরের আলোয় সাজবে ‘জলসা’-সহ আরও দুটি বাড়ি
এবার যেন আলোর শিল্পীদের ব্যস্ততা একটু বেশিই ছিল, পাশাপাশি ছিল উন্মাদনাও। কারণ, স্বপ্নের সেই নায়কের বাড়ি সাজবে তাঁদের হাতের তৈরি আলোতে। আর সেই সুযোগে যদি একবার দর্শন মেলে তাঁর।
বাজিগ্রাম ব্যস্ত বাজি তৈরিতে
বিদ্যাধরী নদীর অববাহিকায় অবস্থিত এই গ্রামের জমি লবণাক্ত। তাই বছরে একবার ধান চাষ ছাড়া আর কিছুই হয় না এখানে। প্রায় ৪০ বছর ধরে তাই এই এলাকার মানুষরা বাজি তৈরিকেই নিজেদের বিকল্প পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন।
বারুইপুরে আটক প্রচুর শব্দবাজি, গ্রেফতার এক
সরকারি ভাবে শব্দবাজির উপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও, এই হারালেই লুকিয়ে চুরিয়ে দেদার শব্দবাজি প্রতি বছরই তৈরি ও বিক্রি করে বাজি ব্যবসায়ীরা। এ বছরও তার অন্যথা হল না।
লক্ষ্মীর সহোদরা কিন্তু তিনি নিয়ে আসেন দুর্ভাগ্য। কে এই অলক্ষ্মী?
অনেক সময়েই অলক্ষ্মীকে দশমহাবিদ্যার অন্যতমা দেবী ধূমাবতীর সঙ্গে একত্র করে দেখা হয়। ধূমাবতী অতি রহস্যময়ী দেবী। তাঁর পূজাবিধি অত্যন্ত গোপন।
রেড রোডে দুর্গা পুজো কার্নিভ্যাল। সরাসরি সম্প্রচার দেখুন
অনুষ্ঠানে উপস্থিত রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ বহু বিশিষ্ট মানুষ। উপস্থিত রয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও।
পুজোয় শাঁখ বাজাতে গিয়ে হাঁপিয়ে গিয়েছেন? তবে সাবধান!
শাঁখ না বাজালে পুজো হয় না আর সেই শাঁখ বাজাতে গিয়েই ধরা পড়ে স্বাস্থ্যের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক। শরীরে কীসের অভাব থাকলে এমনটা হয়? জেনে নিন...
ভুটানের সহযোগিতায় নবমীর মেলা
জলপাইগুড়ির নাগরাকাটার ‘জিতি ভুটান বর্ডার সেভেন্টিন ফাইভ ইউথ ক্লাব’-এর সার্বজনীন দুর্গাপুজার জন্য ভারত ও ভুটান সীমান্তের, বাসিন্দারা দুর্গাপুজার নবমীর দিনটির জন্য অপেক্ষায় থাকেন।
মা দুর্গাকে ‘দুগ্‌গা দুগ্‌গা’ বলতে চলুন গঙ্গার ঘাটে। প্রতিমা নিরঞ্জন চাক্ষুষ করে নেওয়ার এই সুযোগ
বোধন থেকে বিসর্জন। মাঝে মাত্র কয়েকটা দিন। পুজো শেষের অন্তিম মুহূর্তের সাক্ষী থাকতে ইচ্ছে হলে সটান চলে যান গঙ্গার বিশেষ কয়েকটি ঘাটে। যেগুলো ঠাকুর বিসর্জন দেওয়ার জন্য বিখ্যাত। সঙ্গে ক্যামেরা রাখবেন অবশ্যই।
ভিড়ে, বৃষ্টিতে ঘুরে ঠাকুর দেখতে পারেননি? সেরা প্রতিমার শোভাযাত্রা করবে সরকার
দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরে কলকাতার রেড রোডে শপথ গ্রহণ করেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। এ বার সেই রেড রোডেই তৈরি হবে নতুন এক ইতিহাস। শহরের সেরা দুর্গাপুজোগুলির প্রদর্শনেও ব্যবস্থা করতে চলেছে রাজ্য।
আসছে বছর আবার হবে। ২০১৭ সালে দুর্গাপুজো কবে?
পুজো ‘আসছে আসছে’ সেই কবে থেকে। আর যেই না এল পুজো, অমনি শেষও হয়ে গেল। চারটে দিন কোথা দিয়ে যে কেটে গেল!
নবপত্রিকা স্নান থেকে ঘট ভরা, নিজেই করলেন প্রণব। দেখুন ভিডিও
সপ্তমীর সকালে রীতি মেনেই নিজের বাড়ির পুজোর সূচনা করেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। প্রোটোকল ভেঙে এবার নিজেই নদী থেকে ঘট ভরে প্রতিষ্ঠা করেন।
এক ‘বাবা’-র ৫১ সন্তান! প্রথমবার ঠাকুর দেখল কলকাতায় এসে
ঠাকুর, মণ্ডপ, আলো, মানুষের ভিড় দেখে বেজায় খুশি পুরুলিয়া থেকে আসা কচিকাঁচারা। তার সঙ্গে বাড়তি প্রাপ্তি আইসক্রিম-সহ টুকটাক খাওয়া দাওয়া।
ঘরে বসেই দেখুন বেলুড় মঠের কুমারী পুজো। দেখুন ভিডিও
এই দিনটিতে বেলুড় মঠে লক্ষাধিক মানুষ খিচুড়ি ভোগ গ্রহণ করেন। এবারেও সেই আয়োজন ছিল।
পুজোর চার দিন কম পড়তে পারে কলকাতার সব ঠাকুর দেখার জন্য। নিজের মতো করে জোন ভাগ করে নিতে পারেন
সাবেকিয়ানা আর ঐতিহ্য মানেই উত্তর কলকাতা। আবার দক্ষিণ কলকাতা মানে থিম আর এক্সপেরিমেন্ট। পুজোর গোটা একটা দিন উত্তরের জন্য বরাদ্দ রাখতেই হবে। বাকিটা জোন ভাগ করে দেখে নিন। দক্ষিণ কলকাতার জন্যও কিন্তু লাগবে দিনদুয়েক!
পুজোয় মমতার একাধিপত্যে ভাগ বসালেন মোদীও! কোথায়? জেনে নিন
মমতার পাল্টা হিসেবে নরেন্দ্র মোদী। এবারে মুখ্যমন্ত্রী বনাম প্রধানমন্ত্রীর লড়াই পুজো মণ্ডপেও।
মহিষাসুরের বংশধর ‘অসুর’ সমাজও এবার পুজোর মণ্ডপে
উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও শিলিগুড়ির একাধিক অঞ্চলে বসবাস করেন অসুর সম্প্রদায়ের মানুষ। শারদোৎসবে কী করেন তাঁরা?
আসানসোলেই উপেক্ষা! আশার সঙ্গে গাইতে না পেরে অভিমানী বাবুল
আসানসোলের রবীন্দ্রনগর উন্নয়ন ক্লাবে বুধবার এসেছিলেন আশা ভোঁসলে। অনুষ্ঠানে এলেও তিনি কিন্তু গান গাননি।
দুর্গা বাঙালির মরশুমি দেবী, কিন্তু সমাজে এই পুজোর অবদান গভীর
‘দুর্গাপুজো আশ্চর্য সালসার মতো কাজ করে। এই সময়ে বাঙালি জাগ্রত হয়, উদ্যোগী হয়, ঘরমুখী হয়, উদারও হয়।’
আনন্দধারায় উৎসব শুরু, উদ্‌যাপন মসৃণ হোক
আকাশে আশ্বিনের ট্রেডমার্ক পেঁজা মেঘ। পথে মানুষের ঢল। উৎসবের উত্তাপ গ্রহণ করতে মানুষ এই ক’দিন কাজভোলা উত্তেজনার সঙ্গে বেহিসাবি।
পঞ্চমীতেই স্তব্ধ উত্তর থেকে দক্ষিণ। জেনে নিয়ে দুর্ভোগ এড়ান
এদিনও নগরপাল রাজীব কুমার দাবি করেন, বিকেলের পর থেকে শহরে যানজট হবে না। কিন্তু নগরপালের আশ্বাস সত্ত্বেও পঞ্চমীর দিন সন্ধেতেই শহর কার্যত স্তব্ধ হয়ে
‘তেহাই’-এর তালে জেগে উঠছে ‘মা’
সংসার সামলে নিজেদের প্রাণের আনন্দে গান গাওয়া যে একদিন ‘ব্যন্ড’-এর রূপ নেবে, তা বোধহয় নিজেরাই জানতেন না। এখন তো পাড়ার পুজোয় একটি সন্ধ্যা তেহাই-এর নামেই বরাদ্দ।
পুজোয় কি বৃষ্টি হবে? জেনে নিন, কী বলছে হাওয়া অফিস
ঠাকুর দেখা, বন্ধু দের সঙ্গে পাড়ার মণ্ডপে বসে জমিয়ে আড্ডা, বৃষ্টি হলে পুজোর সব আনন্দই মাটি হয়ে যেতে পারে। কিন্তু আবহবিদরা কী বলছেন?
মরুরাজ্যের পাঁচশো বছরের প্রাচীন ‘কাবার্ড’ শিল্পের পুনরুদ্ধার করেছে নবীনপল্লি
প্রায় পাঁচশো বছরের পুরনো শিল্প। যে শিল্পের জন্ম সুদূর রাজস্থানে। বর্তমানে মাত্র তিন-চারটি পরিবারই এই শিল্পের ধারক ও বাহক। এবার বিলুপ্তপ্রায় সেই ‘কাবার্ড’ শিল্পই ফুটে উঠেছে হাতিবাগানের নবীনপল্লির পুজোমণ্ডপে।
অক্ষরে অক্ষরে পুজো আসছে, ক্যালিগ্রাফি বলে দিচ্ছে ‘এসো মা’
পুজো এসে গিয়েছে মহালয়া থেকেই! সোশ্যাল মিডিয়া শহর ছাড়িয়ে সারা দুনিয়ায় পুজোর ছবিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে! ভিড়ের মাঝেই আলাদা করে চোখে পড়ছে আরও কিছু জিনিস। যেগুলো বেশ সৃজনশীল। তার মধ্যেই ‘অক্ষরে অক্ষরে’ পুজো বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। ক্যালিগ্রাফি, তবে পেন-পেনসিলে নয়। বিভিন্ন সফ্‌টওয়্যারের মাধ্যমে।
দেখে নিন দেশপ্রিয় পার্কের প্রতিমা কেমন? সবচেয়ে বড়-র পরে এবার হাজার হাত
এক বছর আগের স্মৃতি এখনও মুছে যায়নি। বিজ্ঞাপনে জিতে বিশৃঙ্খলায় হেরে যায় দেশপ্রিয় পার্ক। এবার কী হবে? হাজার হাতের দুর্গা দেখা যাবে তো?
মমতা ‘মা’ হয়েছেন আগেই, এবার ‘দুর্গা-মা’ হলেন। দেখুন ‘দশভূজা মমতা’র ছবি
দলে অনুগামীরা অনেকেই তাঁকে ‘মা’ বলে সম্বোধন করেছেন অনেকবার। কেউ বলেছেন ‘জঙ্গলমহলের মা’, কেউ বলেছেন ‘বাংলার মা।’ এবার ‘মা’ হিসেবে পুষ্পাঞ্জলিও পাবেন তিনি। কারণ মুখ্যমন্ত্রী এবার দশভূজা হয়ে মণ্ডপে থাকবেন।
হোগলা, শালপাতা, মাদুর! প্রকৃতির নিজস্ব রঙেই এবার পুজোয় মাতবে এ কে ব্লক
কোনও আরোপিত রং নয়, প্রকৃতি থেকেই এবার রং বেছে নেবে তাদের মণ্ডপ। এখানে এবার পুজোর থিম ‘বাংলা হাসছে সৃষ্টির উল্লাসে’। মূলত গ্রামবাংলার ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পকেই তুলে ধরা হচ্ছে মণ্ডপের সাজসজ্জায়।
প্রথমায় পুজো, দ্বিতীয়ায় বিদায়। এই বাংলাতেই রয়েছে দুর্গা পুজোর অবাক রীতি
প্রতিপদে মা দুর্গা আসেন, আর দ্বিতীয়াতেই চলে যান। বাতাসে তখন সবে পুজো পুজো গন্ধ, নতুন পোশাক কেনার আগেই পুজো শেষ।
কৈলাস থেকে সোজা ইংল্যান্ড, বাঙালিয়ানা কিন্তু ১০০%
এখন এখানে ‘অটম’। প্রকৃতি সেজে উঠেছে সবুজ, লাল আর গেরুয়া রঙে। দেশের পুজোর নস্টালজিয়া। ‘প্রবাসী উমা’রা দেশে যেতে না পারলেও, তাদের আবাহনে মা উমা আসছেন বিলেতে, বাপের বাড়িতে।
কুমারী পুজোর উপকার কী? কী কী লক্ষণ দেখে ‘কুমারী’ বাছা হয়?
কুমারীর মধ্যে মাতৃররূপ দর্শন। এ এক প্রাচীন রীতি। দুর্গাপুজোর অষ্টমীর সকালে বেলুড় মঠের কুমারী পুজো তো বিখ্যাত। অনেক বনেদিবাড়িতে তো বটেই, বহু বারোয়ারি পুজোতেও কুমারী পুজো হয়ে থাকে।
আটলান্টায় শরতের হাতছানি
উৎসবের তিথি নিয়ে অনেক আপস, অনেক অসঙ্গতি, তবু সব কিছু তুচ্ছ হয়ে যায় পুজো নিয়ে প্রবাসী বাঙালির অনড় ‘করঙ্গে ইয়া মরেঙ্গে’ মনোভাব ও মনোবলের কাছে। নিজেদের তৈরি সংগঠনের ছাউনির তলায় দাঁড়িয়ে ‘কন্যা দায়গ্রস্ত’ নয়, ‘কন্যা আবাহনে’ ব্যস্ত তাঁরা।
এই ছোট্ট শিল্পীর গড়া এক ফুটের দুর্গাই এবার পুজিতা হবেন মন্ডপে
ছোট থেকেই হাতের কাজে প্রবল আগ্রহ ছিল গোপালের। সেই নেশার টানেই বছর তিনেক আগে সে গড়ে ফেলে এক ফুট দীর্ঘ একটি দুর্গা প্রতিমা।
মেট্রোরেল ঘোষণা করল পুজোর পরিষেবা! রইল তালিকা
প্রতি বছরের মতো এবছরও মেট্রোরেল ঘোষণা করল পুজোর চারদিনের ট্রেন তালিকা। জেনে নিন কোনদিন কোন সময় থেকে চলবে মেট্রো এবং ক’টি ট্রেন চলবে প্রতিদিন।
ভাটিন্ডার শিল্পাঞ্চলে মাতৃবন্দনা
পঞ্জাব প্রদেশের সর্ববৃহৎ শিল্পতালুক, ভাটিন্ডাকে বলা হয় তুলো ও গমের শহর। এইচপিসিএল মিত্তল এনার্জি লিমিটেডের, এইচএমইএল টাউনশিপের বাঙালি বাসিন্দারা এখানে মাতৃ আরাধনার সূচনা করেন ২০১২ সালে।
পুজোটাই বদলে গেল বিধায়ক বৈশালীর, মহারাজ কি বালিতে যাবেন?
একটা বছর যেন অনেকটা সময়। জগৎটাই বদলে গিয়েছে। তাই পুজোও বদলে গিয়েছে বৈশালী ডালমিয়ার। জগমোহন ডালমিয়ার মেয়ে হিসেবেই খ্যাতি ছিল তাঁর। কিন্তু এখন তিনি যে শাসকদলের বিধায়ক।
সবচেয়ে বড় দুর্গা এখন কোথায়? কোথায় গেলে মিলবে ‘বড়’মায়ের দর্শন?
ঠিক এক বছর আগে এই সময়ে শুধু কলকাতা নয়, গোটা রাজ্য এবং ভিন রাজ্যে আলোচনার শীর্ষে ছিলেন তিনি। দেশপ্রিয় পার্কের ‘বড়’ মা। কিন্তু দেবী-দর্শন আর হয়নি। এখন কোথায় তিনি?
পুজোর মাঝেই শহর কলকাতার বনেদিয়ানা
ট্যুরিজিমের সঙ্গে যোগ হয়েছে বাংলার ঐতিহ্য রক্ষার তাগিদ। ‘ট্র্যাডিশন’, ‘হেরিটেজ’, ‘কালচার’— অভিজিৎবাবু এ শহরের সব কিছু তুলে ধরতে চান আগামী প্রজন্মের কাছে।
এই বছর দেবী দুর্গার আগমন ও গমন ঘোড়ায়। কোন কোন ভয়ঙ্কর সর্বনাশের ইঙ্গিত এটি?
আধ্যাত্মিক ইঙ্গিত যদি সত্য হয়, তাহলে ঘোরতর দুর্যোগের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে মানবসমাজ। মহামারি, যুদ্ধ, কিংবা প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে বহু মানুষের প্রাণহানির আশঙ্কা রয়েছে।
এবার পুজোয় ভাসানে হিট কোন বাংলা গান?
প্রতি বছরই বাংলা এবং হিন্দি ছবির জনপ্রিয় গানে জমে ওঠে ভাসান। এবছর কিন্তু পাল্লা ভারী বাংলা গানের দিকেই। ভাসানের নাচে কোন গান জমবে সবচেয়ে ভাল?
মন্ত্রী অরূপের পুজো নিয়ে এত রহস্য কেন? সুরুচি সঙ্ঘের থিম কী?
কলকাতার পুজোর বরাবরের বড় আকর্ষণ সুরুচি সঙ্ঘ। নিউ আলিপুরের এই পুজো মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের পুজো হিসেবেই পরিচিত। কিন্তু এই বছর পুজোর থিম কী, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে এক গভীর রহস্য।
শারদোৎসবে বস্টন যখন হয়ে ওঠে বাংলা
স্থান নিউ ইংল্যান্ড, কাল FALL বা শরৎ। ক্লোসেট থেকে জ্যাকেট-গ্লাভস-টুপি উঁকি মারলেও, গ্রেটার বস্টনের বাঙালিরা তাকে রীতিমত কাঁচকলা দেখিয়ে স্কুলগুলোর (পুজোমণ্ডপ) সামনের ডেস্কে সেজেগুজে ‘প্রেজেন্ট প্লিজ’ বলে হাজিরা দেন।
সব পুজোকে টেক্কা দেবে মুখ্যমন্ত্রীর থিম? এমন দুর্গা পুজো কলকাতায় প্রথমবার
এই বছর কলকাতায় স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী পুজোর থিম হয়েছেন। তাঁকে নিয়েই হচ্ছে মণ্ডপসজ্জা। কিন্তু এবার প্রথম রাজ্য সরকারের উদ্যোগে কলকাতা সাজবে পুজোর আলোয়।
পুজোর সুরে ‘ফিরে দেখা’ শোভনের
এই অ্যালবামে শোভন তাঁর কৈশোরের কিছু ‘পুজোর গান’-কে ফিরে দেখতে চেয়েছেন। শোভনের কৈশোর মানে ১৯৯০-এর দশক। সেই সময়ে পুজোর গান মানে রূপঙ্কর, গৌতম ঘোষাল, নচিকেতা।
কলকাতায় শুরু হয়ে গেল ১৮ দিনের দুর্গা পুজো। ফাঁকায় ফাঁকায় দেখে আসুন
মহালয়ার আগেই বোধন। আর পুজোও শুরু হয় গেল ছ’দিন আগে। চলবে একেবারে মহানবমী পর্যন্ত।
কীভাবে বদলেছে পুজোর মুখ, কী বলছে গবেষণা?
... বদল আসে দুর্গার মুখের গঠনেও। পুরনো প্রতিমায় যে ‘বাংলা চাল’-এর ঠাকুর আমরা দেখেছি, তার টানা চোখ, শুকপাখির মতো নাসা। পরে পূর্ববঙ্গের রুদ্রপাল শিল্পীরা তাকে বদলান। খানিকটা ন্যাচারালিজমের ছোঁয়া এসে লাগে দেবীমুখে।
মাঠেই অস্থায়ী কুমোরটুলি, ক্লাব দেয় জায়গা, প্রতিমা দেন শিল্পী
পুজো শুরুর মাস দেড়েক আগে থেকে গ়ড়িয়ার ওই ক্লাবের মাঠে বাঁশ, ত্রিপল দিয়ে অস্থায়ী কাঠামো গড়ে তোলেন বোড়ালের আতাবাগানের বাসিন্দা রাধারমণ। উল্টোদিকেই তাঁর ওয়ার্কশপ।
পুজোমণ্ডপে ‘অগ্নিকন্যা’র থিমে দুর্গা, দীপার সঙ্গে মমতাও
দুর্গাপ্রতিমার পাশে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ‘অধিষ্ঠিত’ হতে চলেছেন কেন্দুয়ার মণ্ডপে। তবে নারীশক্তির প্রতীক হিসাবে থাকছে মমতা-সহ দেশের আরও কয়েকজন প্রতিবাদী এবং স্বনামধন্য মহিলার পূর্ণাবয়ব বা আবক্ষ মূর্তি।
কাশী বোস লেনে শিল্পের আবহ
সিঙ্গুর থেকে টাটাগোষ্ঠীর কারখানার শেড যদি না-ও আসে, তাতেও কাশী বোস লেনের এ বছরের পুজোমণ্ডপের চমক একটুও কমবে না। কারণ, এবারের থিম— শিল্পায়নের আগ্রাসনে সবুজায়ন যেন বিপন্ন না হয়।
শরতের কাশফুল কি শুধুই দেখার, ছবি তোলার? নাকি কাজেও লাগে?
কাশফুলই সবার আগে জানান দেয় উৎসব আসছে। পুজো এসে গেল। শুভ্র কাশবন যেন শারদীয়ার বার্তা নিয়ে আসে।
জঙ্গিপুরের গদাইপুরে এখনও মায়ের পেট কাটা!
প্রাচীন ঐতিহ্য মেনেই আজও একচালার মূর্তি তৈরি হয়। এখনও মা পেটকাটির মুখে একটুকরো কাপড় লাগানো থাকে। মূর্তির পেট কাটা থাকে। এবং মায়ের মূর্তি শিকলে বাঁধা থাকে।
কামান দেগে নয়, মিঠানিতে সন্ধির ডাক বহন করে বার্তা বাহক
একটি মাটির সরাতে থাকে জল। সেই জলে ভাসানো হয় এক সুক্ষ্ম ছিদ্রযুক্ত তামার বাটি। প্রতি চব্বিশ মিনিটে সেই তামার বাটিটি যতবার ডোবে তার উপর অঙ্ক তৈরি করে সন্ধিকাল নির্ঘণ্ট করেন গ্রহরাজ।
দেবী চৌধুরানী ও দুর্গা রূপে মা মন্থনীদেবী
বর্তমানে বাংলাদেশের রংপুরে অবস্থিত মন্থনা এস্টেটের জমিদার ছিলেন দুর্গাদেবী চৌধুরানী, যিনি দরিদ্র প্রজা ও সন্ন্যাসীদের সঙ্গে নিয়ে ইংরেজদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলেন।প্রজাপরায়ণ এই মহিলা জমিদারের মৃত্যুর পর প্রজারাই মূর্তি গড়ে তাকে দুর্গা রূপে মন্থনীদেবী নামে পুজো করেন।
নিয়োগী বাড়ির শারদ পত্রিকা
দেশ বিদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা নিয়োগী পরিবারের সকল সদস্যই অল্প-বিস্তর কলম ধরেন পারিবারিক পুজো-পত্রিকার জন্য। পারিবারিক এই পুজোকে কেন্দ্র করে পত্রিকা প্রকাশের প্রচেষ্টা পুজোর আনন্দে এক অন্য মাত্রা যোগ করে।
হাড়ভাঙা খাটুনির মাঝেই চলছে তালিম, লক্ষ্য শারদীয়ার পুজো মন্ডপ
চন্দ্রকোনার বেগুনবাড়ি ও চাষিমহল গ্রামে একশোরও বেশি পরিবার ঢাক নিয়েই চর্চা ও জীবিকা উপার্জন করেন। তাই সারাদিন হাড়ভাঙা খাটুনির মাঝেও সকাল-দুপুর-সন্ধ্যায় নিয়ম করে চলছে ঢাকের অভ্যাস।
বিমান-রেল-সড়ক: উত্তরবঙ্গে বাড়তি পরিষেবা পুজোর জন্য
পুজো পুজো পুজো... অনেকেই অনেক আগে থেকে সব টিকিট বুক করেই রেখেছিলেন। কিন্তু যাঁরা করেননি, তাঁরা কি তা হলে ঘরে বসেই পুজো কাটাবেন? একেবারেই না! পুজোর জন্য উত্তরবঙ্গে পৌঁছনোর বিশেষ ব্যবস্থা হয়েছে আকাশ-রেল ও সড়ক পথে।