সিন্ধুর রুপো জয়ের উপর থুতু ফেলতে চাইলেন মালয়লম পরিচালক সনল কুমার শশীধারণ
কুরুচিকর ট্যুইট করে কদিন আগেই বিতর্কে জড়িয়েছিলেন শোভা দে। এবার সে পথে পা বাড়ালেন মালয়লম পরিচালক সনল কুমার শশীধারণ।
মোদীকে নকল ! দেশে ফিরে নতুন স্লোগান দীপার
দেশে ফিরলেন দীপা কর্মকার। বললেন, ‘মেয়েদের উৎসাহ দিন আরও। তারপর দেখুন তাঁরা কী করতে পারে আপনার জন্য’।
রিও থেকে ফিরে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন ও পি জইশা
‘প্রখর রোদে জল ছাড়া ৩০ কিলোমিটারের পরে আর দৌড়তে পারছিলাম না। তা সত্ত্বেও মনের জোরে দৌড় শেষ করি। তারপর অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলাম। আমার মৃত্যুও হতে পারত।’
গর্বের রুপোর নেপথ্যে আছেস্যার ও ছাত্রীর বহু আত্মত্যাগ
রাজকীয় সংবর্ধনায় উপচে পড়া ভিড়, ঢোলের বাজনা, ফেস্টুন, আতসবাজি আর ঘনঘন জয়ধ্বনির মধ্যেই কথা বলা গেল রিও অলিম্পিক্সে ভারতের সেরা পারফর্মারের সঙ্গে। সংবর্ধনায় আপ্লুত পি ভি সিন্ধু বারবার বললেন, বাবা-মা এবং কোচ গোপীচন্দের ভূমিকার কথা।
যোগেশ্বর হতাশ করলেন, ভারত রইল ৬৭ নম্বরে
সোমবার অলিম্পিক্সের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে ভারতের পতাকা নিয়ে হাঁটবেন রিওতে ভারতের একমাত্র পদকজয়ী কুস্তিগির সাক্ষী মালিক।
সিন্ধু বরণে আজ ব্যান্ড থেকে রথ, সব আছে
এর মধ্যেই সিন্ধু কাদের, তা নিয়ে লডা়ই শুরু হয়েছে অন্ধ্র প্রদেশ এবং তেলঙ্গানার মধ্যে। অন্ধ্র প্রদেশ সরকারও তিন কোটি টাকার আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা করে দিয়েছে। তবে দেশের ফেরার পর প্রথমে তাঁর সংবর্ধনা দিচ্ছে তেলঙ্গানা সরকার।
দীপাকে স্বাগত জানাতে থাকছে ১৫.০৬৬ কেক
বিবেকানন্দ স্টেডিয়ামের সংবর্ধনা সভায় দীপার বাবা দুলাল ও মা গৌরী কর্মকারকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা ত্রিপুরা সরকার। থাকবেন দীপার শৈশবের কোচ সোমা নন্দীও।
স্বাধীনতা দিবসের সরকারি ডিনারে অামন্ত্রিত সিন্ধুরা। তার পর যেভাবে অপমানিত হতে হল!
সুখের নাম রিও। আবার যন্ত্রণার নামও রিও। যত ঘটনা যেন যেন রিওতেই।
নিরাশ করলেন যোগেশ্বর। শেষমেষ ক’টি পদক এল ভারতের ?
যোগেশ্বর দত্ত অলিম্পিক্সের মঞ্চে এই নিয়ে চতুর্থ ও শেষবার প্রতিনিধিত্ব করলেন দেশের হয়ে। তবে পদকের আশা পূর্ণ হল না।
আমি তোমার ভক্ত, সিন্ধুকে অভিনন্দন রজনীকান্তেরও
অলিম্পিক্স ব্যাডমিন্টনে তাঁর রুপো জয় ঘুম ভাঙিয়ে দিয়েছে ‘রজনী স্যারের’ও! দক্ষিণী চলচ্চিত্রের সুপারস্টার ‘থালাইভা’ রজনীকান্ত টুইটারে সচরাচর মন্তব্য করতে চান না। কিন্তু তাঁকেও চঞ্চল করে দিয়েছেন পুসারলা বেঙ্কট সিন্ধু। শুক্রবার কারোলিনা মারিনের বিরুদ্ধে লড়াই করে হারের পর টুইটারে তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে রজনীকান্ত টুইট করেছেন, ‘হ্যাট্‌স অফ টু ইউ। রুপো জয়ের জন্য অভিনন্দন। আমিও তোমার ভক্ত হয়ে গেলাম’।
প্রোদুনোভা মৃত্যু ভল্ট নয়: দীপা
রাজীব খেল রত্নের জন্য তাঁর নাম কেন্ত্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক সুপারিশ করায় তিনি উচ্ছ্বসিত। কিন্তু শনিবার নয়াদিল্লিতে পৌঁছনোর পর সংবাদসংস্থাকে দীপা কর্মকার জানিয়ে দিলেন, কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী দ্রোণাচার্য হলে তিনি আরও বেশি খুশি হবেন! দ্রোণাচার্য পুরস্কারের জন্য বিশ্বেশ্বরের নামও কেন্ত্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক সুপারিশ করেছে।
আজ লড়াই যোগেশ্বরের, দেশের পথে নরসিংহ
রবিবার ৬৫ কেজি ফ্রিস্টাইল কুস্তি ইভেন্টে নামছেন যোগেশ্বর দত্ত। কিন্তু তার আগেই নরসিংহ যাদবের নির্বাসনের কালো ছায়ায় ঢাকা পড়ে গিয়েছে ভারতীয় শিবির। তবে সেই অধ্যায়কে মন থেকে সরিয়ে রেখে পদকের লক্ষ্যে নিজেকে তৈরি রাখছেন ৩৩ বছরের ভারতীয় কুস্তিগির।
যে কারণে গুগলে সবচেয়ে চর্চিত পিভি সিন্ধু জানলে লজ্জা হবে!
ধন্যি এই দেশ! এখনও কত পিছনে যে পড়ে রয়েছে ভারত, তা চোখে আঙুল দিয়ে যেন দেখিয়ে দিলেন পিভি সিন্ধু! এই দেশ এখনও ভিত্তিহীন বিষয় নিয়ে মেতে থাকতে পছন্দ করে। পিছনের সারিতে পড়ে থাকে মানুষের আসল পরিচয়।
উবের অ্যাপেই সম্মান জানাতে পারবেন সিন্ধুকে। কীভাবে?
একটা পদক বদলে দিতে পারে দেশের নারীর স্পন্দন। গোটা দেশের ছবিটাও নিমেষে বদলে যেতে পারে। পিভি সিন্ধু সেটাই দেখিয়ে দিলেন।
রুপো-জয়ী সিন্ধু ঘরে ফিরে যা যা পাবেন, তা অনেককে ঈর্ষান্বিত করবেই
একটা পদক ধনী থেকে আরও ধনী করে দিল পিভি সিন্ধুকে।
আশা জাগিয়েও পদকের লক্ষ্য থেকে অনেকটাই দূরে অদিতি
রিও অলিম্পিক্সের প্রথম থেকেই উজ্জীবিত খেলেছিলেন অদিতি যার ফলে ফাইনালের ছাড়পত্রও জোগাড় করে ফেলেন সহজে। তবে ফাইনালে অনেকটাই পিছিয়ে থাকার দরুণ পদকের আশা ক্ষীণ।
পদক আসেনি, তবু দেশে ফিরে নায়কের সম্মান পেলেন দীপা
ক্রীড়াপ্রেমীদের হৃদয় জয় করে নেওয়া দীপার লক্ষ্য ভবিষ্যতে এমন একটি ভল্ট আবিষ্কার করা যা দীপার নামেই জিমন্যাস্টিক্স ইতিহাসে থেকে যায়!
মোদীর কাছে যাবেন নরসিংহ
কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, নরসিংহকে সমর্থন করতে গিয়ে সর্বভারতীয় অলিম্পিক সংস্থা (আইওএ) ও জাতীয় কুস্তি ফেডারেশন (ডব্লিউএফআই) কুস্তিতে ৭৪ কেজি বিভাগে দেশের পদক সম্ভাবনাকেই কি জলাঞ্জলি দিল?
সোনা না এলেও যন্ত্রণা ভুলে সাফল্যেরই জয়গান, বিমানবন্দর থেকে সরাসরি যোগ দিলেন গগনও
হায়দরাবাদ থেকে অন্য দুই ‘এস’-এর উত্থান সিন্ধুর কাছে প্রেরণা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। ‘‘সাইনার খেলা ও খুব মন দিয়ে দেখত। সাইনার ট্রেনিং করার ধরন ওর খুব ভাল লাগত। সিন্ধুর কেরিয়ারে এটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়েছে,’’ মনে করেন বাবা রামানা।
স্বপ্নভঙ্গ
রিও অলিম্পিক্সে একের পর এক লড়ুয়ে মুহূর্ত তৈরি করেছেন ভারত-কন্যা। কিন্তু গভীরতম মুহূর্ত সম্ভবত তিনি উপহার দিলেন ফাইনালের শেষে। যখন নিজেকে সামলে ক্লান্ত, অবসন্ন শরীরটা টেনে তুলে উল্টোদিকের কোর্টে গিয়ে জড়িয়ে ধরলেন ক্রন্দনরত সোনাজয়ী ক্যারোলিনা মারিনকে। দ্বিতীয়জন অলিম্পিক্স চ্যাম্পিয়ন। প্রথমজন? হৃদয়ের চ্যাম্পিয়ন!
সিন্ধুর সাফল্যে উল্লাস দেশে। উচ্ছ্বাস বলিউডে।
পিভি সিন্ধু রুপো জিতলেন রিওতে। ফাইনালের আগে থেকেই এই ম্যাচের পারদ চড়ছিল।
রুপোর মেয়ে সিন্ধু। রিওতে দেখালেন জমাট লড়াই।
পিভি সিন্ধু রুপো পেলেন। ভারতের ঝুলিতে এল দ্বিতীয় পদক।
কোহলি পিছনের সারিতে। গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে কাকে জানেন?
ক্রিকেট চলে গেল পিছনের সারিতে। বিরাট কোহলিকেও ছাপিয়ে গেলেন পিভি সিন্ধু, সাক্ষী মালিকরা।
সোনার লড়াইয়ে পিভি সিন্ধু। কীভাবে সিন্ধুকে তাতালেন কোহলি? রইল ভিডিও
আজ সবার নজর একজনের দিকে। তিনি পিভি সিন্ধু। বৃহস্পতিবার সেমিফাইনালে জাপানের খেলোয়াড় ওকুহারাকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালের পাসপোর্ট জোগাড় করে ফেলার পরেই সোনার স্বপ্নে বিভোর গোটা দেশ।
কেন্দ্রের আগেই রেল সম্মানিত করল সাক্ষীকে! কী পেলেন হরিয়াণার মেয়ে?
দিল্লিতে ভারতীয় রেলের কমার্শিয়াল দফতরে এতদিন কাজ করতেন হরিয়াণার মেয়ে সাক্ষী।
আজ সিন্ধুর প্রতিপক্ষ মেয়েদের ‘নাদাল’। কতটা কঠিন লড়াই? দেখে নিন ইনফো-গ্রাফিক্সে
ফাইনালে সিন্ধুর প্রতিপক্ষ যথেষ্ট কঠিন। স্পেনের ক্যারোলিনা মারিন কিন্তু বুঝিয়ে, সোনার জেতার পথে কোনও বাধাই তাঁকে আটকাতে পারবে না। পিছিয়ে নেই ২১ বছরের ভারতীয় কন্যাও। তিনিও দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, ফাইনালে নিজের সেরাটাই দেবেন।
ভারতীয়দের অপমান! পাকিস্তানি সাংবাদিক, শোভা দে-কে যোগ্য জবাব বচ্চন, বীরুর
টুইটারে লেখিকা শোভা দে-র এই মন্তব্য নিয়ে কয়েকদিন আগও কম শোরগোল হয়নি। অন্যদিকে আবার পাকিস্তানের এক সাংবাদিককে পাল্টা দিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।
মনের কথা সিন্ধুকে বলেই ফেললেন অভিনব বিন্দ্রা। সিন্ধু কি কথা রাখবেন?
এতদিন তিনি যেন একা কুম্ভ রক্ষা করছিলেন! ধারেপাশে কেউ নেই। একাকী তিনি। নিঃসঙ্গ। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় অভিনব বিন্দ্রা হঠাৎই যেন বুঝতে পারলেন তাঁর একাকীত্ব হয়তো এবার ঘুঁচতে চলেছে।
সমালোচনা নয়, ভরসা দাও। ভারতীয় অলিম্পিয়ানদের পক্ষ নিল মাদার ডেয়ারি: দেখুন ভিডিও
রিওতে একের পর এক প্রতিযোগী অসফল হওয়ার পর থেকেই এমন বহু ট্যুইট, পোস্ট দেখা গেছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে, যেখানে বলা হয়েছে অ্যাথলিটরা দেশের পয়সা ধ্বংস করতে, সেলফি তুলতে রিওতে গিয়েছেন। পদক পাওয়ার কোন যোগ্যতা বা ইচ্ছে তাঁদের নেই। তবে এসবের বিপক্ষে এবার রুখে দাঁড়াল মাদার ডেয়ারি।
দেশকে ব্রোঞ্জ দিলেন সাক্ষী। দেশ তাঁকে কী দিল?
সাক্ষী মালিকের ডাবল বোনানজা। রিওর ময়দানে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।
দীপা কর্মকার খুশি হতে পারেন কেবল একটি কারণেই! জেনে নিন তা।
খেলরত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন ভারতের জিমন্যাস্ট দীপা কর্মকার। খবরের ভিতরকার খবর বলছে, দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়াসম্মান রাজীব খেলরত্ন পুরস্কার এবার তিনি পাচ্ছেনই।
সাক্ষী বদলে দিলেন ‘সুলতান’-এর কাহিনিও! ‘সুলতান-২’তে কী হবে?
‘সুলতান’-এর নায়িকা আরফার মতো বাস্তবের সাক্ষী মালিকেরও ছোট থেকে স্বপ্ন ছিল অলিম্পিক্সে দেশের হয়ে পদক জেতা। অলিম্পিক্সে পদক জয়ের পরে নিজেই সেকথা জানিয়েছেন সাক্ষী।
আড়াই কোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা। টুইটারে অভিনন্দনের বন্যা সাক্ষীর জন্য
বুধবার গভীর রাতে পদকের লড়াইতে নেমেছিলেন সাক্ষী। পদক জয়ের অপেক্ষায় থাকা অনেক দেশবাসীর কাছেই এই খবর হয়তো ছিল না।
পদক ব্রোঞ্জের কিন্তু সোনার মেয়ে সাক্ষী
রিও অলিম্পিক্সে ভারতের হয়ে প্রথম পদকটি জিতলেন সাক্ষী মালিক। তাঁকে নিয়ে প্রচারের আলো ছিল না। হই চই ছিল না। নিঃশব্দে তিনি উঠে এলেন অলিম্পিক্স সেরার দলে।
আজ শুনানি, উচ্চকর্তার দাবি: নরসিংহ পদক নিয়ে ফিরবেন
সর্বভারতীয় কুস্তি ফেডারেশনের সমর্থনই রিও অলিম্পিক্সে নামার ব্যাপারে নরসিংহ যাদবের প্রধান ভরসা। ডোপ পরীক্ষায় ব্যর্থ নরসিংহকে দেশের ডোপ-বিরোধী সংস্থা নাডা ছাড় দিলেও বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা ওয়াডা ক্যাস (কোর্ট অফ আরবিট্রেশন ফ স্পোর্টস)-এ সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আবেদন জানিয়েছে।
আশায় সাক্ষী, চোট বিনেশের
কোয়ার্টার ফাইনালে হারলেও পদক জয়ের আশা পুরোপুরি শেষ হয়ে যায়নি সাক্ষী মালিকের! মহিলাদের ৫৮ কেজি ফ্রিস্টাইলে বুধবার শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন সাক্ষী।
দীপার অনুরোধে বাড়ির কাছেই তৈরি হচ্ছে প্রোদুনোভা ভল্টের অত্যাধুনিক পরিকাঠামো
তিনি এখন গোটা রাজ্যের মুখ হয়ে উঠেছেন। দীপা কর্মকারের অনুরোধ শোনামাত্র তাই রাতারাতি তৎপরতা শুরু হয়ে গিয়েছিল ত্রিপুরার প্রশাসনিক মহলে।
সিন্ধু বেশি আগ্রাসী মেনে নিয়েও সাইনাকে এগিয়ে রাখছেন মধুমিতা বিস্ত’রা
সাইনা নেহওয়াল তাঁর কাছে বরাবরই ভীষণ স্পেশ্যাল! সেই ১৯৯৮ সাল থেকে। সেই বছর আট বছরের সাইনা হায়দরাবাদের লাল বাহাদুর শাস্ত্রী স্টেডিয়ামে তাঁর কোচিং সেন্টারে ভর্তি হয়েছিলেন।
চোট নিয়ে দুই মাস বিছানায়, তখনই রিওর ছক কষা শুরু
প্রথম অলিম্পিক্সে নেমেই মহিলাদের ব্যাডমিন্টন সিঙ্গলসে সেমিফাইনালে পৌঁছনো এবং পদকজয়ের সম্ভাবনা তৈরি করা। পুসারলা বেঙ্কট সিন্ধুর বাবা রামান্না (দেশের প্রতিনিধিত্ব করা অর্জুন পুরষ্কারপ্রাপ্ত ভলিবল খেলোয়াড়) চেষ্টা করছেন মেয়ের এই কীর্তির উচ্ছ্বাসটা যথাসম্ভব চেপে রাখার!
অবৈধ সম্পর্ক পাইয়ে দেয় ‘অর্জুন’ পুরস্কার! আঁধারে আলো ফেলল দীপার ভল্ট
রিও অলিম্পিক্সে দীপা কর্মকার চোখধাঁধানো পারফরম্যান্স না-করলে জানাই যেত না ভারতের জিমন্যাস্টিক্স আসলে তমসাচ্ছন্ন। এখানে চক্রান্ত হয়। পিছন থেকে ছুরি মারা হয়।
লড়েও হার। সম্মান রেখেই বিদায় নিলেন শ্রীকান্ত
সাইনা বিদায় নিলেও পদকের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন এই ব্যাডমিন্টন তারকা। তবে শেষরক্ষা হল না।
রিও অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ দিতে অভিনব ঘোষণা সলমনের
কিছুদিন আগেই তাঁর বিরুদ্ধে উঠেছিল সমালোচনার ঢেউ। তবে এবার যে পদক্ষেপ নিলেন, তাতে সমালোচকরা আপাতত চুপ।
অলিম্পিক্সে মন্ত্রী বিজয় গোয়েলের মন্দ ভাগ্য। সোনার বদলে পেলেন রুপো!
দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী বিজয় গোয়েল রিও অলিম্পিক্সে গিয়ে একের পর এক কাণ্ড করে চলেছেন। দেশের ক্রীড়াবিদদের নামধাম ঠিকঠাক জানেন না তিনি।
খেলরত্ন পেতে পারেন দীপা
দীপা কর্মকারের কোচ বিশেশ্বর নন্দীকে দ্রোণাচার্য দেওয়া হোক। স্বয়ং ছাত্রী এই দাবি তুলেছেন।
পদক না পেলেও পথপ্রদর্শক হয়েই থেকে যাবে দীপা
চাকদহ থেকে চক দে। বিশ্বের সেরা বোলার, অলরাউন্ডার হয়েছেন। ঝুলন গোস্বামী বলছেন দীপা কর্মকার নিয়ে...
এই ভারতীয়ের হাত ধরে আসতেও পারে পদক
রিও অলিম্পিক্সে এখনও পর্যন্ত কোনও পদক আসেনি ভারতের ঘরে। ওয়াং-এর বিরুদ্ধে বাজিমাত করে সিন্ধু কি পারবেন দেশকে পদকের আরও কাছে নিয়ে যেতে ?
অলিম্পিক্সের মন্ত্র মনে করিয়ে দিয়ে রিওর হৃদয় জয় দীপার
রিও দে জেনেইরোর ফরাসি সাংবাদিক। বিশ্বকাপের পর অলিম্পিক্সেও ‘এবেলা’ রিপোর্টার
কোয়ার্টার ফাইনালে শ্রীকান্ত
অলিম্পিক্সের ব্যাডমিন্টনে পুরুষদের সিঙ্গলসে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছলেন কিদাম্বি শ্রীকান্ত। সোমবার রিওতে বিশ্বের ১১ নম্বর খেলোয়াড় অঘটন ঘটালেন বিশ্বের পাঁচ নম্বর খেলোয়াড় ডেনমার্কের হান জনসনকে হারিয়ে!
পদক হারিয়েও সেরার স্বীকৃতি
সিমোন বাইলস রান আপ নেওয়ার সময়ও পয়েন্ট টেবিলে তাঁর নামটা তিন নম্বরে জ্বলজ্বল করছিল। বিশ্বের এক নম্বর জিমন্যাস্টের পরপর দু’টো নিখুঁত ভল্ট স্বপ্নভঙ্গ ঘটিয়ে দিল দীপা কর্মকারের। শেষ করতে হল চার নম্বর হয়ে।
হারের পিছনে দীপার কোচ কিন্তু অন্য গন্ধ পাচ্ছেন!
অল্পের জন্য কোথায় ভুল হয়ে গেল দীপা কর্মকারের? যার জন্য পদক হাতছাড়া হয়ে গেল ভারতের আশাভরসার প্রতীকের?
পদকশূন্য ঘরে আশার আলো জ্বালিয়ে রাখলেন শ্রীকান্ত
রিও অলিম্পিক্সের শুরু ‌থেকেই এবার নজর কেড়েছেন শ্রীকান্ত কিদাম্বী
পদক জিততে না-পারায় দীপা যা করলেন, তা জানলে আপনিও সমবেদনা জানাবেন
খুব কাছে এসেও সেই দূরেই থেমে যেতে হল দীপা কর্মকারকে। রবিবার রাতে গোটা দেশ তাঁর কাছ থেকে পদক আশা করেছিল।
বিগ বি থেকে মাধুরী— দীপায় মাতোয়ারা সবাই। কিন্তু সলমন খান কী করলেন?
দীপা কর্মকার চতুর্থ হয়ে স্বপ্নের দৌড় শেষ করলেন রিও অলিম্পিক্সে। নিজেকে ছাপিয়ে গিয়েও শেষপর্যন্ত আর পারলেন না আগরতলার মেয়েটি।
সাইনার বিদায়, ব্যাডমিন্টনে আশার আলো দেখাচ্ছেন আর এক ভারতীয়
গ্রুপ লিগের দ্বিতীয় খেলাতে ইউক্রেনের মারিয়া ইউলিটিনার কাছে ২-০ তে পরাজিত হয়ে রিও থেকে বিদায় নিলেন সাইনা নেহওয়াল। অন্যদিকে পুরুষদের সিঙ্গলসে ভারতের শ্রীকান্ত কিদাম্বী পৌঁছলেন শেষ ষোলোয়।
আজ জোড়া পদকের আশায় ভারত
সেমিফাইনালে হেরে গেলেও ব্রোঞ্জের আশা এখনও জিইয়ে রেখেছেন রোহান-সানিয়া। তৃতীয় স্থান দখলের লড়াইয়ে আজ রাত্রে তাঁরা নামছেন চেকস্লোভাকিয়ার বিরূদ্ধে। অন্যদিকে, ইতিহাস রচনার সামনে দাঁড়িয়ে দীপা কর্মকার।
আবেগ সরিয়ে শূন্য থেকে শুরু করতে চান সানিয়ারা
পদক এবং তাঁদের মধ্যে ব্যবধান মাত্র এক ম্যাচের। মিক্সড ডাবলসের সেমিফাইনালে উঠে সানিয়া মির্জা জানিয়ে দিলেন, আবেগ দূরে সরিয়ে ফের নতুনভাবে লড়াই শুরু করতে চান।
আগ্রাসী বেলজিয়ামের সঙ্গে চোট নিয়ে অনিশ্চিত সুনীল
অলিম্পিক্স হকিতে শেষ আটের যুদ্ধে সর্দার সিংহদের সামনে এবার বেলজিয়াম। যাদের কাছে ০-৪ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে এক বছর আগেই ওয়ার্ল্ড হকি লিগে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন চূর্ণ হয়েছিল ভারতীয় হকি দলের। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে এই মুহূর্তে ভারত পাঁচ নম্বরে।
বিদেশে যাব না, আমাকে ভল্ট টেবিলটা এনে দিন
দীপা কর্মকার যখন অলিম্পিক্সের ভল্ট ফাইনালে উঠে গোটা দেশকে পদকের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন, তখন তাঁর বাবা দুলাল কর্মকার কৃতিত্ব দিচ্ছেন রিও রওনা হওয়ার আগে আধুনিক পরিকাঠামোয় শেষ তিনমাসের প্রস্তুতিকে। যা বদলে দিয়েছে দীপার কেরিয়ারের অভিমুখটাই।
মা, নার্ভাস লাগলেও সেরাটাই দেব আমি
রিওতে নামছে মেয়ে। সারা ভারতের স্বপ্ন তাঁদের মেয়েকে ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে। তিনি— দীপা কর্মকার কি পারবেন জিমন্যাস্টিক্সের ভল্ট ইভেন্টে পদক জিতে দেশকে গর্বিত করতে?
মোদীর ক্রীড়ামন্ত্রী অলিম্পিক্সে গিয়ে সেলফি তুলে বিতর্কে
রিও অলিম্পিক্স চলছে পুরোদমে। একটা পদকও এখনও পর্যন্ত ঘরে তুলতে পারেননি ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা। কবে আসবে কাঙ্ক্ষিত একটা পদক, সেই অপেক্ষাতেই বসে দেশবাসী।
কেন রিওতে গেলেন জ্বালা গুট্টা?
কী করতে রিও অলিম্পিক্সে গিয়েছেন জ্বালা গুট্টা ও অশ্বিনি পোনাপ্পা? কেউই এর সঠিক উত্তর দিতে পারবেন না।
ফাইনালে দীপা কি পদক জিতবেন? কী বলছেন ছেলেবেলার কোচ?
স্বাধীনতা দিবসের আগের দিন গোটা ভারতের নজর থাকবে একজনের দিকে। তিনিই এখন দেশের প্রাণভোমরা। ভারতকে পদক এনে দিতে পারেন আগরতলার জিমন্যাস্ট দীপা কর্মকার।
‘সুলতান’-এর ‘আরফা’-র সঙ্গে বহুলাংশে মিল আছে ভিনেশ ফোগাটের
ভারতীয় কুস্তির জগতে নয়া চমক তাঁকে বলা যেতেই পারে। কুস্তিতে পারিবারিক ইতিহাস তো রয়েছেই। সেইসঙ্গে ভিনেশের ‘কিলার ইনস্টিংক্ট’-মানসিকতা তাঁকে অদম্য করে তুলেছে।
ভারতীয় শ্যুটিং-এর উপেক্ষিত নায়ক গগন নারঙ্গ
একাধিক বিশ্বরেকর্ড। কমনওয়েলথ গেমসে রেকর্ড সংখ্যক স্বর্ণপদক। তবুও গগন নারঙ্গ যেন কোথাও ভারতীয় শ্যুটিং-এ কাব্যে উপেক্ষিত হয়েই থেকে গিয়েছেন।
সাইনার নেওয়ালের র‌্যাকেটে পদক জয়ের স্বপ্নে বিভোর দেশবাসী
বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার। মাঝখানে চোট-আঘাতে জর্জরিত হয়ে পারফরম্যান্স খারাপ করে র‌্যাঙ্কিং-এ এক নম্বর স্থানটি হারাতে হয়েছে তাঁকে। তবু, রিও অলিম্পক্সে ভারতের পদক জয়ের অন্যতম আশার নাম সাইনা নেওয়াল।
বিজেন্দ্রর অনুপস্থিতিতে শিবা থাপাই অলিম্পিক বক্সিং-এ ভারতের আশা
অলিম্পিক্সে কোয়ালিফাই করা ভারতের কনিষ্ঠতম বক্সার। অসমের গুয়াহাটির বাসিন্দা বাইশ বছরের শিব থাপা এবারে রিও অলিম্পিক্সে ৫৬ কেজি ব্যান্টামওয়েটে প্রতিনিধিত্ব করছেন ভারতের হয়ে।
দ্যুতির ছটায় রিও মাতবে কি? অপেক্ষায় ভারতবাসী
পি টি ঊষার পরে ভারতের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় অ্যাথলেট বলা হচ্ছে ওড়িশার দ্যুতি চাঁদকে। এমনকী, পি টি ঊষাও দ্যুতির সাফল্য নিয়ে আশাবাদী।
ভারতীয় ক্রীড়া-মানচিত্রে ঐতিহাসিক চরিত্রে পরিণত হয়েছেন দীপা কর্মকার
এই প্রথম অলিম্পিক্সে কোনও ভারতীয় জিমন্যাস্ট অংশগ্রহণের ছাড়পত্র পেয়েছেন। সেদিক থেকে দেখতে গেলে আগরতলার এই বাঙালি কন্যা ইতিমধ্যে ভারতীয় অলিম্পিক্সের মানচিত্রে এক ঐতিহাসিক চরিত্রে পরিণত হয়েছেন। রিও অলিম্পিক্সে ভারতের পদক জয়ের সম্ভাব্য তালিকায় দীপা কর্মকারকে দেখতে পাবেন বলে অনেকেই মনে করছেন।
অসম্ভব প্রতিভাময়ী। তবু কি ‘চোকার্স’-ই থাকবেন দীপিকা কুমারী?
১০ বছর ধরে ভারতীয় তিরন্দাজিতে পরিচিত নাম দীপিকা কুমারী। একেবারে জুনিয়র লেভেল থেকেই দেশের ক্রীড়াপ্রেমী মানুষের কাছে জনপ্রিয় তিনি। তবে, বড় মঞ্চে গিয়ে যেন তাল কেটে যায় দীপিকা কুমারীর। রিও অলিম্পিক্সে সকলেই চাইছেন, দীপিকা যেন এবার পদক আনতে ব্যর্থ না হন।
অলিম্পিক্সে এখনও পর্যন্ত ভারতের সেরা তারকার নাম অভিনব বিন্দ্রা
ভারতের প্রথম অলিম্পিক ক্রীড়াবিদ, যিনি ব্যক্তিগত বিভাগে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন। ৩৩ বছর বয়সি অভিনব বিন্দ্রার এটাই শেষ অলিম্পিক। ২০০০ সালে সিডনি অলিম্পক্সে দেশের সবচেয়ে কনিষ্ঠ অলিম্পিয়ান হিসাবে অভিষেক ঘটেছিল অভিনব বিন্দ্রার।
মাত্র ৮ বছরেই শ্যুটিং-এ উঠতি তারকা অপূর্বি চাণ্ডিলা
অভিনব বিন্দ্রার মতোই ১০ মিটার এয়ার রাইফেল তাঁর প্রিয় ইভেন্ট। ভারতীয় মহিলা শ্যুটারদের মধ্যে এবার তিনি সবার প্রথমে রিও যাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন।
বাঁশের তৈরি হকি স্টিক, খালি পায়ে জীবন শুরু করে রিওতে ২ মণিপুরীর কীর্তি
অলিম্পিক্সের কোনও গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মণিপুরেরই দুই খেলোয়াড়ের গোলে ভারত জয় পেল— এরকম ঘটনা প্রথমবার। মঙ্গলবার আর্জেন্তিনার বিরুদ্ধে এই দুই গোলদাতা চিঙ্গেলসানা সিংহ এবং কোথাজিৎ সিংহের সৌজন্যে পতাকা উঠে গেল মণিপুরের দুই হকি প্রতিষ্ঠানে!
সব রাইফেল বেচে দিচ্ছেন অভিনব! ধরবেন লাঙল?
গৌরবজনক এক কেরিয়ার শেষ হয়ে গেল রিওতে। অভিনব বিন্দ্রা তাঁর দশ মিটার এয়ার রাইফেল ইভেন্ট শেষ করেছেন চতুর্থ হয়ে। চার বছর বাদের টোকিও অলিম্পিক্সে তিনি আর থাকবেন না।
‘‘সৌরভ আসলে বড় রাজনীতিক।’’ মারাত্মক অভিযোগ অভিনব বিন্দ্রার
ব্যক্তিগত ইভেন্টে একমাত্র সোনার পদকের মালিক তিনিই— অভিনব বিন্দ্রা। রিও অলিম্পিক্সেই শেষ হয়ে গেল অভিনবর অভিনব এক কেরিয়ার। চতুর্থ হয়ে তিনি শেষ করেন তাঁর স্বপ্নের দৌড়।
গোটা দেশ দীপাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখছে। সলমন খান যা করলেন, তাতে লজ্জা হবে
এই তো অবস্থা দেশের! সাধে কি আর বলে, এই পোড়া দেশে কিছু হবে না! দেশের ‘গর্ব’ যে, দীপার নামই ঠিকমতো জানেন না রিও অলিম্পিক্সে ভারতের শুভেচ্ছাদূত।
১২০০ টাকার পুরনো ধনুক কাঁধে স্বপ্ন শুরু হয় বাংলার অতনুর
চাপের মুখে স্নায়ু ধরে রেখে তিরন্দাজির ব্যক্তিগত ইভেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে, পরীক্ষা প্রাক্তন এক নম্বরের বিরুদ্ধে...
দীপার কীর্তিতে উজ্জীবিত, কলকাতায় কোথায় দীপা?
কলকাতার স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (সাই) জিমন্যাসিয়াম হল। ৩২ বছর আগে তৈরি হওয়া এই সাইয়ের জিমন্যাসিয়ামে এখনও দু’বেলা শোনা যায় জিমন্যাস্টদের কোলাহল। পুরুষ এবং মহিলা মিলিয়ে এখন এই সেন্টারে থেকে প্রায় ৪৫জন নির্বাচিত জিমন্যাস্ট এখানে ট্রেনিং করেন।
টুইটারে শোভা দে-কে ভদ্রভাবে ‘থাপ্পড়’ মারলেন অভিনব ব্রিন্দা
অলিম্পিক্সে পদক ফসকানোর পর অভিনব ব্রিন্দাকে কটাক্ষ করেন শোভা দে। এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। কেউই শোভা দে-র টুইটকে সমর্থন করেননি।
‘‘কিছু পেতে হলে তো ঝুঁকি নিতেই হবে’’, বলছেন দীপার বাবা
মৃত্যুর সঙ্গে প্রতিনিয়ত পাঞ্জা কষেন ভারতের গর্ব দীপা কর্মকার। শুনতে অবাক লাগছে? অবাক লাগলেও ঘটনাটা যে পুরোদস্তুর সত্যি। গোটা ভারত যখন ঘুমিয়ে পড়েছে রবিবার রাতে, তখন সুদূর ব্রাজিলে অলিম্পিক্সের মঞ্চে নতুন নজির গড়েছেন ত্রিপুরার আগরতলার মেয়েটা।
জলের ভয় কাটিয়ে জলেই স্বপ্ন ছুঁতে চান ভোকানল
পাথর ভাঙার কাজ করতেন ভোকানলের বাবা-মা দু’জনই। হাড়ভাঙা পরিশ্রম করেও সংসার চলত কোনওরকমে। পরিস্থিতি আরও বেহাল হয়ে দাঁড়ায় ২০১১ সালে তাঁর বাবা হাড়ের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায়।
একে একে নিবিছে দেউটি। রিও-য় হালে পানি পাচ্ছে না ভারত। এবার ইনি...
লিয়েন্ডার পেজের খাতা বন্ধ হয়েছে আগেই। এবার অলিম্পিক্সের একটি পর্ব থেকে ছিটকে গেলেন সানিয়া মির্জাও। তবে যাওয়ার আগে মরণকামড় দিয়েছিলেন।
আমিই সহজ লক্ষ্য, হেরে বললেন লি
পোল্যান্ডের উকাস কুবোত-মার্চিন মাতকোস্কি জুটির কাছে লিেয়ন্ডার পেজ-রোহন বোপান্না হেরে গেলেন ৪-৬, ৬-৭ (৬) সেটে। পুরুষ ডাবলসে ভারতের পদক জয়ের স্বপ্ন প্রথম রাউন্ডেই শেষ। লিয়েন্ডার নেমেছিলেন নিজের সাত নম্বর অলিম্পিক্সে।
অপেক্ষা করছে সোনা-রুপো। জেনে নিন কী করলে মিলবে তা
রিও অলিম্পিক্স এখনও শুরু হয়নি। তার আগেই ভারতের স্বর্ণ ব্যবসায়ী সংগঠন জানিয়ে দিল পদকজয়ী সোনার ছেলেমেয়েদের তারা সংবর্ধনা দেবে।
রিও পৌঁছে গেলেন সচিন
জমে উঠেছে রিও-তে অলিম্পিক্সের আসর। দেশ, বিদেশের তারকা ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে রিও-তে পা রাখলেন এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান।
ঘরের দেওয়ালে আলির উক্তি, পক্ষাঘাত রোগকে হারিয়ে রিওতে প্রকাশ
কিংবদন্তি বক্সারের এই দুটো বাক্যই লড়াই করার শক্তি জুগিয়েছে প্রকাশ নানজাপ্পাকে। দুরারোগ্য ব্যাধিকে হার মানিয়ে যিনি অবিশ্বাস্যভাবে ফিরে পেয়েছেন স্বাভাবিক জীবন। অলিম্পিক্স শুটিংয়ে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবেন প্রকাশ। রিওতে নামবেন ৫০ মিটার পিস্তল ইভেন্টে। তিন বছর আগে যেটা কল্পনা করাও সম্ভব ছিল না।
প্রেরণা কোনি, শিবানীর লক্ষ্য ফাইনালের ছাড়পত্র
‘কোনি’ উপন্যাসের ওপর তৈরি সিনেমাটি দেখেছেন অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জন করা ভারতের একমাত্র মহিলা সাঁতারু শিবানী। রিও রওনা হওয়ার আগে নয়াদিল্লির তালকোটরা স্পোর্টস কমপ্লেক্সে চলছে তাঁর শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।