SEND FEEDBACK

English
Bengali

২৬ হাজার টাকা মাইনে। তবু নির্যাতনের দায়ে পরিচারিকাকে ৮ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | এপ্রিল ২০, ২০১৭
Share it on
রোজ ইন্টারন্যাশনাল নামে সংস্থার সিইও হিমাংশু ভাটিয়াকে এই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট অফ ক্যালিফোর্নিয়ার ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট। হিমাংশু তাঁর বাড়ির সর্বক্ষণের পরিচারিকা শিলা নিংওয়ালকে ফেডেরাল লেবার ল অনুযায়ী ন্যূনতম পারিশ্রমিক দিচ্ছিলেন না বলেই অভিযোগ।

বাড়ির পরিচারিকাকে ঠিকমতো মজুরি না দেওয়া এবং তাঁর প্রতি দুর্ব্যবহারের অভিযোগে ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন সিইও-কে ১৩৫০০০ মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় ৮ কোটি ৭২ লক্ষ টাকারও বেশি) ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিল এক মার্কিন ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট। শ্রমমন্ত্রকের যথাযথ তদন্তের পরেই এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

রোজ ইন্টারন্যাশনাল নামে সংস্থার সিইও হিমাংশু ভাটিয়াকে এই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট অফ ক্যালিফোর্নিয়ার ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট। হিমাংশু তাঁর বাড়ির সর্বক্ষণের পরিচারিকা শিলা নিংওয়ালকে ফেডেরাল লেবার ল অনুযায়ী ন্যূনতম পারিশ্রমিক দিচ্ছিলেন না বলেই অভিযোগ। 

আরও পড়ুন
বলিউড তারকাদের বাড়ির পরিচারিকারা কতটা সুখে থাকেন!

হিমাংশুকে যে অভিযোগে অভিযুক্ত করেছে আদালত সেখানে বলা হয়েছে, মাসে ৪০০ ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় ২৬ হাজার টাকার কাছাকাছি) করে পারিশ্রমিক হিসেবে শিলাকে দিতেন হিমাংশু। সেই সঙ্গে ছিল থাকা-খাওয়ার বন্দোবস্ত। সান জুয়ান ক্যাপিস্ত্রানো, মায়ামি, লাস ভেগাস এবং লং বিচে একাধিক বাড়ি রয়েছে হিমাংশুর। সেই সমস্ত বাড়িতেই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ঠাঁই জুটত শিলার। 

আদালতের বক্তব্য, এই বন্দোবস্তও আইন অনুযায়ী যথেষ্ট ছিল না। আরও বেশি পারিশ্রমিক প্রাপ্য ছিল শিলার। তা ছাড়া কয়েক বার মেঝেয় কার্পেটে শুয়ে রাত কাটাতে শিলাকে বাধ্য করেছিলেন হিমাংশু। আদালতের মতে, এটাও গর্হিত অপরাধ। 

ডিসেম্বর ২০১৪-তেই শিলাকে কাজ থেকে ছাড়িয়ে দিয়েছিলেন হিমাংশু। সেই সময়ে এক দিন নাকি গোপনে ইন্টারনেটে শ্রম আইন সংক্রান্ত নিয়মাবলী দেখার চেষ্টা করছিলেন শিলা। তখনই তাঁকে হাতে-নাতে ধরে ফেলেন হিমাংশু। এর পর শিলাকে একটি ঘোষণাপত্রে সই করার জন্য চাপ দেন, যেখানে লেখা ছিল যে, আইন অনুসারে যথাযথ পারিশ্রমিক শিলা পাচ্ছেন। সেই দাবিপত্রে সই করতে শিলা অরাজি হওয়ার পরেই তাঁকে কাজ থেকে বিতাড়িত করেন হিমাংশু। এমনকী তাঁর পাসপোর্টও কেড়ে নেন। আদালতের দ্বারস্থ হন শিলা। বেশ কয়েকটি শুনানির শেষে বুধবার এই রায় ঘোষণা করেছে আদালত।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভারতীয় বংশোদ্ভূতের বিরুদ্ধে পরিচারিকার প্রতি ‘অমানবিক’ আচরণের অভিযোগ এই প্রথম নয়। ২০১৩ সালে বরিষ্ঠ ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানী খোবড়াগাড়ের বিরুদ্ধেও পরিচারিকাকে কম মজুরি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। 

মার্কিন দেশের এই ঘটনার সূত্রে অনেকেরই মনে পড়ে যেতে পারে, বছর কয়েক আগে দিল্লিতে বিএসপি সাংসদ সঞ্জয় সিংহের বাড়িতে ঘটে যাওয়া একটি ঘটনার কথা। সঞ্জয়ের স্ত্রীয়ের মারে প্রাণ হারিয়েছিলেন তাঁদের বাড়ির পরিচারিকা রাখি। এতটা তীব্র আকারে না হলেও পরিচারিকার উপর অত্যাচারের ঘটনা ভারতীয় সমাজে আকছার ঘটে। সম্প্রতি শিলিগুড়ির প্রধাননগরের একটি বাড়িতে কর্মরতা এক কিশোরী বাড়ির মালিক-মালকিনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছে। এ দেশের আইন আসলে এখনও ততটা কড়া হয়ে উঠতে পারেনি, যার ভয়ে এই ধরনের অপরাধ করার আগে গৃহকর্তারা দু’বার ভাবেন। 

Himanshu Bhatia Housemaid Domestic Help Sheela Ningwal
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -