SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

পাকিস্তানে অস্তিত্ব সংকটে পৃথিবীর প্রাচীনতম শহর! হতে পারে জঙ্গি হানা

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মে ১৯, ২০১৭
Share it on
৩০০০ বছরের পুরনো এই শহর মাটির তলা থেকে আবিষ্কার করা হয় ১৯২০ সালে। ১৯৮০ সালে, ইউনেস্কো থেকে এই অঞ্চলকে ‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট’-এর তকমা দেওয়া হয়।

সিন্ধু সভ্যতার সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ও সর্ববৃহৎ জনবসতি— মহেঞ্জোদারো। 

ভারত ও পাকিস্তান, এই দুই দেশের মাটিতেই ছড়িয়ে ছিটিয়ে পাওয়া গিয়েছে প্রাচীন এই সভ্যতার নিদর্শন। তবে মহেঞ্জোদারো শহরটি পুরোটাই রয়েছে পাকিস্তানে। করাচি থেকে প্রায় ৪২৫ কিলোমিটার দূরত্বে রয়েছে প্রাচীন এই ‘সিন্ধু’ শহর। 

৩০০০ বছরের পুরনো এই শহর মাটির তলা থেকে আবিষ্কার করা হয় ১৯২০ সালে। ১৯৮০ সালে, ইউনেস্কো থেকে এই অঞ্চলকে ‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট’-এর তকমা দেওয়া হয়। 

কিন্তু, বর্তমানে পাকিস্তানের সার্বিক অবস্থার জন্য খুবই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এই পুরাতাত্ত্বিক সাইট। দেশের ও আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকে অর্থ সাহায্য বন্ধ হয়ে যায় ১৯৯৬ সালে। পরে তা হস্তান্তরিত হয় সিন্ধু প্রদেশের সরকারের উপর। ‘রেস্টোরেশন’-এর প্রথম ধাপে আঘাত পাওয়ার পরে প্রকৃতিও বাধা হয়ে দাঁড়ায় এই স্থানের। এই অঞ্চলের ভৌমজল অতি মাত্রায় লবণাক্ত হওয়ায়, শহরের বেশ কয়েকটি দেওয়ালও ধসে পড়েছে।

আরও পড়ুন

‘মহেঞ্জো দারো’-তে অভিনয়ের জন্য কী শর্ত দিয়েছিলেন হৃতিক? জানলে চমকে যাবেন

এর পরেও রয়েছে সে দেশের মানুষের অজ্ঞতা। ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে, পাকিস্তান পিপলস পার্টি-র নেতা, বিলাওয়াল ভুট্টো জরদারি, ‘সিন্ধ ফেস্টিভ্যাল’-এর আয়োজন করতে চেয়েছিলেন মহেঞ্জোদারোর খুব কাছে। এর ফলে ওই প্রত্নতাত্ত্বিক সাইট প্রবল ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু, পঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফ থেকে তার বিরোধ করা হয়।

সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ও ভয়ের কারণ যার জন্য প্রভূত ক্ষতি হতে পারে এই প্রাচীন শহরের, তা হলো পাকিস্তানের জঙ্গি কার্যকলাপ। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, মহেঞ্জোদারো সংরক্ষণে এখনও যদি সচেতন না হওয়া যায়, তা হলে ২০৩০ সালের মধ্যেই বিশ্ব থেকে অবলুপ্ত হয়ে যাবে এই ইতিহাসের এই নিদর্শন। 

Mohenjo-Daro Pakistan Oldest City Terror Attack
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -