SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

বাড়িতে শর্ট সার্কিট, ধোঁয়া। কারণ খুঁজতে গিয়ে আঁতকে উঠল পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মে ১৯, ২০১৭
Share it on
ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে। সেখানে একটি বাড়িতে শর্ট সার্কিটের সমস্যা হচ্ছিল।

বাড়ি বা অফিসের ইলেক্ট্রিকাল বক্সের মধ্যে ছুঁচো-ইঁদুর ঢুকে যাওয়ার সমস্যা ভারতে অন্তত নতুন নয়। তার জেরে বিদ্যুৎ বিভ্রাটও ঘটে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার একটি পরিবার যে অভিজ্ঞতার সাক্ষী থাকল, তা শুনলে রীতিমতো শিউরে উঠতে হয়। 

ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে। সেখানে একটি বাড়িতে  শর্ট সার্কিটের সমস্যা হচ্ছিল। কেন এমন হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখার বাড়ির ইলেক্ট্রিকাল সকেট-এর একটি মুখ খুলে পরীক্ষা করতে যান পরিবারেরই এক সদস্য। তখনই তিনি দেখেন, ওই সকেটের পিছনে লুকিয়ে রয়েছে একটি অজগর সাপ। ততক্ষণে সাপটি নিজেও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েছে। কার্পেট পাইথন প্রজাতির এই সাপটি আকারে বেশ বড় হলেও খুব বেশি মোটা নয়। ফলে কোনওভাবে সেটি দেওয়ালের পিছনে ইলেক্ট্রিকাল সকেটের মধ্যে ঢুকে গিয়েছিল।

ইলেক্ট্রিকাল সকেটের ভিতর থেকে বের করে আনা হচ্ছে সাপটিকে। ছবি- সানশাইন কোস্ট স্নেক ক্যাচার্স।

সাপটি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পরেই বাড়িতে শর্ট সার্কিট হয়। ইলেক্ট্রিকাল সকেটের ভিতর থেকে ধোঁয়াও বেরোতে থাকে। তখনই ওই পরিবারের নজরে আসে বিষয়টি। ২৪০ ভোল্টের কারেন্ট খেলেও সাপটি অবশ্য বেঁচে ছিল। 

এর পরেই সানশাইন কোস্ট স্নেক ক্যাচার্স নামক একটি সংস্থার কর্ণধার রিচি গিলবার্টকে খবর দেয় পরিবারটি। ওই সর্প বিশেষজ্ঞ এসেই সাপটিকে ইলেক্ট্রিকাল সকেটের ভিতর থেকে বের করেন। যদিও সাপটি ওই সকেটের ভিতরে থাকা তারের সঙ্গে এমনভাবে পেঁচিয়ে ছিল, যে সেটিকে বের করতে বেশ বেগ পেতে হয়। রিচি পরে জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট সাপটির অবস্থা বেশ খারাপ।

Snake Carpet Python Queensland Australia
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -