SEND FEEDBACK

English
Bengali

ধর্মগোষ্ঠীর নামে ফেসবুকে পেজ! প্রতারণা, মাদক, নারীপাচার রয়েছে সব কিছুই

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | এপ্রিল ২০, ২০১৭
Share it on
এক সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিকের খবর অনুযায়ী, ফেসবুকের এই পেজ-এ গিয়ে নিজের ফোন নম্বর দিয়ে রাখলেই হল। পেজের মালিক, ৫৫ বছরের সুনীল কুলকর্নি সেই নম্বরে ফোন করে কথা বলত এবং উপযুক্ত ক্যান্ডিডেটকে তাঁর কাল্ট সম্পর্কে বোঝাত।

‘কাল্ট’ বা ধর্মগোষ্ঠীর নামে কতও ‘বাবা’-ই না ধরা পড়েছে দেশের এখানে-ওখানে। কিন্তু তাদের সকলকেই প্রায় ছাপিয়ে গেল ‘শিফু সংস্কৃতি’ নামে একটি ফেসবুক পেজ। সেটাই স্বাভাবিক এই টেকনলজির যুগে!

এক সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিকের খবর অনুযায়ী, ফেসবুকের এই পেজ-এ গিয়ে নিজের ফোন নম্বর দিয়ে রাখলেই হল। পেজের মালিক, ৫৫ বছরের সুনীল কুলকর্নি সেই নম্বরে ফোন করে কথা বলত এবং উপযুক্ত ক্যান্ডিডেটকে তাঁর কাল্ট সম্পর্কে বোঝাত। 

এমনই দুই যুবতীর মা-বাবা, তাঁদের ২১ ও ২৩ বছরের মেয়েদের ব্যবহারে অস্বাভাবিকতা দেখে জানতে পারেন ‘শিফু সংস্কৃতি’ সম্পর্কে। তাঁরা পুলিশে অভিযোগ জানাতে গেলে, পুলিশের থেকে কোনও সাহায্য পাননি প্রথমে। পরবর্তী সময়ে, অন্য দুই দম্পতিও একই অভিযোগ করায়, বম্বে হাইকোর্ট পুলিশকে নির্দেশ দেয় সুনীল কুলকর্নি ও তার শিফু সংস্কৃতির বিরুদ্ধে এফআইআর করতে।  

অভিযোগের ভিত্তিতে বেশ কিছু তথ্য উঠে আসে সুনীল কুলকর্নি সম্পর্কে। সে নিজেকে চিকিৎসক ও মনোবিজ্ঞানী বলে পরিচয় দিলেও, ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন-এর তরফে জানা গিয়েছে যে, ওই নামে কোনও রেজিস্ট্রেশনই নেই। 

মূলত ১৮ থেকে ২৫ বছরের মেয়েদেরই ‘টার্গেট’ করত সুনীল কুলকর্নি। প্রথমে তাদের মাদকাসক্ত করে, সুনীল যৌন সংসর্গ করত তাদের সঙ্গে। ড্রাগ্‌সের নেশার ফলে মেয়েগুলি অনেক ক্ষেত্রেই নিজেদের বাড়ি ফিরতে চাইতো না। সে ক্ষেত্রে তাদের যৌন ব্যবসায় ব্যবহার করা হতো কি না, তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, মুম্বইয়ের মালাড পুলিশ স্টেশন থেকে সুনীল কুলকর্নির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যাক্ট অনুযায়ী, সোশ্যাল মিডিয়ায় পাচার, প্রতারণা, অশ্লীলতা ও মিথ্যে প্রচার করার জন্যই সুনীল কুলকর্নিকে গ্রেফতার করা হয়েছে গত মঙ্গলবার।

Sunil Kulkarni Shifu Sunkriti Facebook Bombay High Court Malad Cult
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -