Nirbikar Acharya

বহুরূপে সম্মুখে বাবা

ঘন শীতে জমজমে চা-কফির ঠেক/ ফোঁস ফোঁস নিঃশ্বাস, বড়দিন-কেক/ কমলায়-সোয়েটারে পৌষের ওম/ রাত জুড়ে লেপ-ঘুম জমেছে চরম

প্রশ্ন পাঠান

প্রশ্ন পাঠানোর সময় নিজের নাম-ধাম-আতা-পাতা জানাতে ভুলবেন না যেন। পরীক্ষা প্রার্থনীয় ।

এই সপ্তাহের খোলাখুলি (২১ — ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮)
আমি জীবনে বড় হতে চাই। টাকা কামাতে চাই, কিন্তু পারছি না। ঠিক মতো চাকরি পাচ্ছি না। কী করলে উন্নতি হবে?
শান্তনু ঘোষ, চট্রগ্রাম, বাংলাদেশ
আচার্যমত : টাকা না কামালেও আপনি বড় হবেন। বয়সে বাড়বেন। আর চাকরির টাকায় কে কবে ‘বড়’ হয়েছে, সেটা আগে ভেবে বলুন দেখি।
ভিডিও গেম-এ আসক্ত হয়ে পড়াশোনায় ক্ষতি হয়েছে৷ এখন আর গেম খেলি না৷ তবুও পড়াশোনায় ঠিক মনযোগ আসছে না! পিছুটান অনুভূত হয়৷ একটা সমাধান পেলে কৃতজ্ঞ থাকব৷
উপাসক ভদ্র,, শান্তিপুর, নদিয়া
আচার্যমত : এটা খুবই সিরিয়াস সমস্যা। এ থেকে বেরিয়ে আসতে কাউন্সেলিং প্রয়োজন। নিজে যদি এ থেকে বেরতে না পারেন, তবে মনোবিদের শরণ নিন।
আমার বিবাহিত জীবন সম্পর্কে কিছু বলুন...
সুস্মিতা চাকমা, ঠিকানা নেই
আচার্যমত : ছি ছি দিদিভাই, আপনার বিবাহিত জীবনে উঁকি দেব, এমন হীন লোক আমি নই!
আমার প্রেম সফল হবে কি?
এইচ এম জাকির রাজু, ঠিকানা জানাননি
আচার্যমত : লেজা নেই, মাথা নেই, খামোকা প্রেম! আগে জানান আপনি কে, সেই প্রেমটাই বা কী প্রকারের, কতদিনের সম্পর্ক আর ‘সাফল্য’ বলতে আপনি কী বোঝেন।
‘তিতলি’র ভাইয়ের নাম ‘ফেতাই’ (Phethai) কেন?
ইন্দ্রনীল চৌধুরী, ঠিকানা দেননি
আচার্যমত : গ্রামার অনুযায়ী ‘তেতাই’ হলেই ভাল হতো। ছিপছিপে বৃষ্টি আর শনশনে হাওয়ায় হাড়-মাংস ফ্যাতফেতে করে ছাড়ল বলেই হয়তো...
বড়দিনে সবাই কেক খায় কেন?
প্রণয় বর্মণ, আগরতলা, ত্রিপুরা
আচার্যমত : ওটা বাড্ডে কেক মশাই। যিশু সাহেবের বাড্ডে।
আমার শ্বশুর আমাকে পছন্দ করেন না। শ্বশুরবাড়ি গেলে, এমনকী আমার বাড়িতে এলেও খোঁচা মেরে কথা বলেন। কী করে ওঁর মন জয় করব?
অবন্তিকা হালদার, দার্জিলিং
আচার্যমত : আপনাকে যখন শ্বশুরবাড়ি থাকতে হয় না, তখন একটু ঝুঁকি নিন। আড়ালে শ্বশুরকেও খোঁচা দিন। মন জয় করার বৃথা চেষ্টা করবেন না।
আমার এক বন্ধু বই লিখেছে। খুবই খারাপ লেখা। বন্ধু জানতে চাইছে, কেমন লেগেছে? কী করি?
শ্রেয়া রায়, গড়িয়া
আচার্যমত : তাঁকে হুমকি দিন আপনিও ১২০০ পাতার একটা উপন্যাস লিখছেন, প্রথম পাঠক হবেন তিনিই।
শীত পড়ছে। আমি ঠান্ডায় একেবারে স্নান করতে পারি না। এদিকে বাড়ির লোকের জ্বালায় বাথরুমে ঢুকতেই হয়৷ কিছু একটা উপায় বলুন না।
শিবেন্দু মণ্ডল, বহরমপুর
আচার্যমত : স্নান না করলে আপনিই পস্তাবেন। তাতে বাড়ির লোকের যে জ্বালা হবে, তা জুড়নোর জল পাওয়া মুশকিল।
সদ্য বিয়ে হয়েছে। স্ত্রী ঘুমের ঘোরে হেঁটে বেড়ায় ঘরে! কী করা যায়?
অনুপম বাগ, সল্ট লেক
আচার্যমত : বাইরে তো আর যান না! ঘরেই থাকেন। ফলে টেনশন কোথায়! বেশি বাড়াবাড়ি করলে রাতে আপনি জেগে জেগেই তাঁকে ফলো করুন ঘরের মধ্যে। সময় কাটবে।