SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

১৮৩ রান করলেই কি ভারতের অধিনায়ক হওয়া যায়? অবিশ্বাস্য তথ্য। পুরোটা জানলে চমকে যাবেন

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | জানুয়ারি ৫, ২০১৭
Share it on
শুনলে মনে হবে ১৮৩ শুধুমাত্র একটা সংখ্যা। এই সংখ্যা ভারতীয় ক্রিকেটের অধিনায়ক পদের সঙ্গে প্রবলভাবে জড়িয়ে।

শর্ত একটাই, সীমিত ওভারের খেলায় দেশের হয়ে স্কোরবোর্ডে তুলতে হবে ১৮৩। ১ রান কমও নয়, ১ রান বেশিও নয়। ব্যস, তাহলেই অধিনায়কের আসন একরকম পাকা। শুনে ভাবছেন নিশ্চয়ই, এ আবার কী! অধিনায়কত্বের জন্য যোগ্যতা বিচার না করে শর্ত! তাও আবার এমন অদ্ভুত ধারার! অবাক লাগলেও সাম্প্রতিককালের কিছু পরিসংখ্যান এমন কথাই বলছে। ভারতীয় ক্রিকেটে অধিনায়কের পদের সঙ্গে ১৮৩ রানের যেন এক নিবিড় যোগাযোগ রয়েছে। অন্তত ভারতের শেষ দুই অধিনায়কের ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে এমনটাই। সীমিত ওভারের খেলায় স্কোরবোর্ডে ১৮৩ রান তোলার পরেই তাঁদের মাথায় উঠেছিল অধিনায়কের মুকুট।

ফেরা যাক ১৯৯৯ সালে বিশ্বকাপের ম্যাচে। সেবার শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি ভারত। ৭টা ছয় এবং ১৭টা চার সম্বলিত এক দুর্দান্ত ইনিংস ওই ম্যাচে উপহার দেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। স্কোরবোর্ডে তাঁর নামের পাশে তখন জ্বলজ্বল করছে ১৮৩। ঠিক এর পরের বছরই অর্থাৎ ২০০০ সালে অধিনায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে তাঁর। 

সময়টা ২০০৫। জয়পুরে একদিনের সিরিজে ভারত মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কার। ভারতের সামনে ২৯৯ রানের লক্ষ্য। ১ উইকেট পড়ার পরে ব্যাট হাতে এলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। তখনও তিনি এতটা জনপ্রিয় হননি। ১০টা ছক্কা এবং ১৫ টা চার-এর একটা ঝোড়ো ইনিংস উপহার দিয়ে ম্যাচ জেতালেন ধোনি। নিজে করলেন ১৮৩ রান। এর ঠিক দু’বছর পরে ২০০৭-এ ভারতের অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচিত করা হল তাঁকে। টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেশের নেতা হয়েছিলেন তিনি। সেবার ভারত টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে। 

সদ্য একদিন ও টি টোয়েন্টি ফরম্যাটের খেলার অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন মাহি। তাঁর অবর্তমানে অধিনায়ক হওয়ার সম্ভবনা যাঁর সব থেকে বেশি, সেই বিরাট কোহলিও কিন্তু ১৮৩ রান করেছেন। সালটা ২০১২। চিরপ্রতিদ্বন্ধী পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়েছিল ভারত। বিরাট সেবার একটি স্মরণীয় ইনিংস খেলে ১৮৩ রান করেন। 

বলা বাহুল্য, বিরাট অধিনায়কের আসনে এলে ‘১৮৩-র রূপকথা’ আরও জোরালো হবে। প্রশ্ন উঠতেই পারে, তবে কি যোগ্যতাটা কোনও কথা নয়? কিংবা সৌরভের আগে কি কেউ অধিনায়ক হননি? আসলে যুক্তির দুনিয়ায় এই লড়াইয়ের কোনও শেষ নেই। তাই এটা নেহাতই কাকতালীয় নাকি সত্যিই ১৮৩-র সঙ্গে অধিনায়ক হওয়ার সম্পর্ক রয়েছে, সেই বিচার পাঠকরাই করুন।

Sourav Ganguly Mahendra Singh Dhoni Virat Kohli Captain India
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -