SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

হোটেলে আগুন লাগার সময় ধোনি কী করছিলেন, জানলে শ্রদ্ধা আরও বাড়বে

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মার্চ ১৭, ২০১৭
Share it on
সকালেই হোটেলে আগুন লেগেছিল। তবে এখন সুরক্ষিতই রয়েছেন ঝাড়খণ্ড দলের ক্রিকেটাররা। কিন্তু বিশেষ ওই মুহূর্তে কী করছিলেন ধোনি?

বিজয় হাজারের সেমিফাইনালে গুরুত্বপূর্ণ খেলা ছিল বাংলার বিরুদ্ধে। জিতলেই তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে ফাইনালে খেলার টিকিট নিশ্চিত হয়ে যেত। তবে সাত সকালেই ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়ে গিয়েছিল ঝাড়খণ্ড বনাম বাংলা ম্যাচের। ধোনিরা পালাম দিল্লির দ্বারকা এলাকার যে হোটেলে রয়েছেন সেখানেই সকালে আগুন লেগেছিল। তাতেই ম্যাচ স্থগিত হয়ে যায়। রাঁচির মহারণে স্টিভ স্মিথ বনাম বিরাট কোহলি যুদ্ধের উপরেই ফোকাস ছিল সর্বভারতীয় মিডিয়ার। তবে ধোনিদের হোটেলের আগুন নিমেশে সেই ফোকাস এনে দেয় দিল্লিতে।

একদম ভোরবেলাতেই ক্রিকেটারদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে দেওয়া হয় হোটেল কর্তৃপক্ষের তরফে। সেইসময় ধোনি কী করছিলেন? ঝাড়খণ্ড দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ঈশান কিষান সর্বভারতীয় এক মিডিয়ায় জানান, ধোনি সেই মুহূর্তে প্রকৃত অভিভাবকের মতো আচরণ করেছিলেন। ঈশান কিষান যে ঘরে ছিলেন, সেই ঘর এতটাই ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছিল যে নিঃশ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছিল কিষানদের। ম্যাচ খেলার চিন্তা নয়, তখন মৃত্যুভয়টাই আসল হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

সেই সময়েই প্রকৃত মেন্টরের দায়িত্ব পালন করেছিলেন ধোনি। ঈশানের কথায়, ‘মাহি ভাইও নিজের রুম থেকে বেরোতে পারছিল না। আমরা পুরোপুরি কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েছিলাম। বুঝতেই পারছিলাম না, সেই সময় আমাদের কী করা উচিত। কারণ এরকম অভিজ্ঞতার মুখোমুখি আগে আমরা কখনও পড়িনি।’ এরপরেই ঈশান বলছেন, ‘মাহিভাই নিজের ঘর থেকে বেরোতে না পারলেও প্রত্যেককে টেক্সট করে শান্ত থাকার পরামর্শ দিচ্ছিলেন।’

এরপরে উদ্ধার করা হয় আটক হওয়া ক্রিকেটারদের। ক্রিকেটীয় সাজসরঞ্জাম রুমেই পড়ে থাকে। সকাল ন’টা নাগাদই ম্যাচ স্থগিত থাকার ঘোষণা করে দেওয়া হয়। তারপর বেলার দিকে বোর্ডের তরফে ইমেল মারফত জানিয়ে দেওয়া হয়, স্থগিত হওয়া ম্যাচ শনিবার খেলা হবে। ফাইনালের দিনও পিছিয়ে দেওয়া হয়।

মাঠের মধ্যে বারবারই ‘ক্যাপ্টেন কুলের’ পরিচয় পেয়েছে বিশ্ব। এবার মাঠের বাইরেও বিপদের মুহূর্তে তিনি কেমন অবিচল থাকেন, তা জেনে গেলেন সবাই।

MS Dhoni Jharkhand Cricket Vijay Hazare
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -