SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

ত্রুটি শোধরানোর প্রতিশ্রুতি মুখ্যমন্ত্রীকে দিল অ্যাপোলো

নিজস্ব সংবাদদাতা | মার্চ ২১, ২০১৭
Share it on
নিজেদের ত্রুটি শেষপর্যন্ত স্বীকার করে নিলেন অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষ। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষের তরফে ম্যানেডিং ডিরেক্টর পৃথা রেড্ডি কার্যত দুঃখপ্রকাশ করে হাসপাতালের পরিষেবা উন্নত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

নিজেদের ত্রুটি শেষপর্যন্ত স্বীকার করে নিলেন অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষ। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষের তরফে ম্যানেজিং ডিরেক্টর পৃথা রেড্ডি কার্যত দুঃখপ্রকাশ করে হাসপাতালের পরিষেবা উন্নত করার 
প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠকের পর বেরিয়ে পৃথা জানান, পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৯০ লক্ষ রোগী অ্যাপোলোয় ভাল চিকিৎসা পেয়ে এসেছেন। তবে তাঁর স্বীকারোক্তি, ‘‘তবে বিগত দিনে অ্যাপোলো যে পরিষেবা দিয়ে এসেছে, গত মাস দেড়েক ধরে পরিষেবার মান ততটা কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে ছিল না। রোগীদের ভাল পরিষেবা দিতে হবে। জরুরি বিভাগে সর্বোচ্চ মানের চিকিৎসা দিতে হবে। যা আমরা বিগত ৩০ বছর ধরে দিচ্ছি। আমাদের খুব ভাল পরিকাঠামো রয়েছে, সেখানে প্রয়োজনমাফিক কিছু সংশোধনের প্রয়োজন রয়েছে। খামতি থাকলে 
শুধরে নেব।’’
চিকিৎসা-খরচ যুক্তিসঙ্গত করার পাশাপাশি রাজ্য সরকার এবং স্বাস্থ্য-কমিশনের সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যে পূর্ণমাত্রায় সহযোগিতা করবে, সেই আশ্বাসও দিয়েছেন পৃথা। তিনি আরও জানান, যুক্তিসঙ্গত খরচে সর্বোচ্চ মানের স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী অসাধারণ পরামর্শ এবং প্রস্তাব দিয়েছেন।’’  
প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন আগে থেকেই চিকিৎসায় গাফিলতি এবং ‘অন্যায্য’ চিকিৎসা-খরচ সংক্রান্ত অভিযোগ উঠছিল অ্যাপোলোর বিরুদ্ধে। ডানকুনির যুবক সঞ্জয় রায়ের মৃত্যুর পর যা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছয়। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি প্রমাণিত হয়েছে বলে সরকারি সূত্রের খবর। সেই রিপোর্ট যাচাই করার জন্য সর্বোচ্চ কমিটির রিপোর্টও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জমা পড়েছে। এরই সঙ্গে তদন্ত করছে ফুলবাগান থানার পুলিশ। কার্যত চাপের মুখে ইস্তফা দিতে বাধ্য হন হাসপাতালের তৎকালীন সিইও রূপালি বসুও। তারপর থেকেই নিজেদের বক্তব্য জানানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সময় চেয়ে আর্জি জানাচ্ছিলেন হাসপাতালের সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ। সেই বৈঠক হল এদিন।
এদিকে, রাজ্য সরকারের গঠিত নয়া স্বাস্থ্য কমিশনের প্রথম বৈঠক হওয়ার কথা আগামিকাল বুধবার। বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা বিভ্রাট এবং অতিরিক্ত বিল সংক্রান্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে এই কমিশন গঠিত হয়।

 

Apollo Hospital Mamata Banerjee
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -