SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন রোগী, অজুহাত তুলে চিকিৎসক কোথায় পালালেন

নিজস্ব প্রতিবেদন, দক্ষিণ দিনাজপুর, এবেলা.ইন | মে ১৯, ২০১৭
Share it on
জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুকুমার দে জানিয়েছেন, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে সমস্ত রকমের জটিল থেকে জটিলতর অপারেশনের অত্যাধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে।

যন্ত্রপাতি নেই তাই ভাঙা হাতের সামান্য অপারেশন সম্ভব নয়। যন্ত্রপাতি না থাকার মিথ্যে অজুহাত দিয়ে বেডে যন্ত্রণায় কাতর আদিবাসী মহিলাকে ফেলে বিন্দাস ছুটি কাটাতে চলে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর সাধের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের চিকিৎসক। অথচ মাস খানেক আগেই আশি বছরের বৃদ্ধের হিপ-জয়েন্ট ভেঙে যাওয়ায় জটিলতর অপারেশন করে সারা ফেলে দিয়েছিল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে অবস্থিত এই হাসপাতাল। 

ছোট বড় যে কোনও ধরনের হাড়ের অপারেশন করার সমস্ত যন্ত্রপাতি-সহ অত্যাধুনিক সুবিধা সম্বলিত আলাদা অপারেশন থিয়েটারও রয়েছে। কিন্তু তা সত্বেও বালুরঘাটের জলঘর এলাকার আদিবাসী এক মহিলা দীপালি পাহানকে গত দশদিন ধরে হাসপাতালের বেডে যন্ত্রনায় ছটফট করতে হচ্ছে। হাসপাতালের অস্থি বিশেষজ্ঞ অলোককুমার মাইতি জেলার বাইরে চলে গিয়েছেন। অভিযোগ, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে যন্ত্রপাতি নেই বলে দীপালিদেবীর স্বামীকে জানান তিনি। অভিযোগ, ছুটিতে যাওয়ার তাড়াতেই এমন ‘অজুহাত’ দিয়েছেন তিনি।

সপ্তাহ তিনেক আগেও রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে প্রশাসনিক বৈঠকে বালুরঘাটের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে সমস্ত রকমের যন্ত্রপাতি ও অত্যাধুনিক পরিকাঠামো বর্তমান রয়েছে বলে ঘোষণা করেছিলেন। অথচ যন্ত্রপাতি থাকা সত্বেও শুধুমাত্র ছুটিতে যাওয়ার জন্যই তা নেই বলে রোগীর বাড়ির লোকেদের জানানোর এই ঘটনায় খোদ প্রশাসনিক মহলেই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জলঘর এলাকার গুপিনগর গ্রামে বাড়ি দীপালি পাহান গত ৯ মে সকালে বাড়িতে পিছলে পড়ে গেলে তাঁর বাঁ-হাত ভেঙ্গে যায়। ওই দিনই বাড়ির লোকেরা তাঁকে সোজা বালুরঘাটের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে অলোককুমার মাইতির অধীনে ভর্তি করান। চিকিৎসক জানিয়েও দেন যে হাতের অস্ত্রোপচার করাতে হবে। দীপালিদেবীর স্বামী বিনোদ পাহান শুক্রবার সকালে অভিযোগ করে বলেন যে, চিকিৎসক তাঁকে জানিয়েছেন যে হাসপাতালে হাতের অস্ত্রোপচারের যন্ত্রপাতি না থাকায় এই মুহূর্তে তাঁর স্ত্রীর সম্ভব নয়। যন্ত্রপাতি এলে তবেই তিনি অস্ত্রোপচার করিয়ে দেবেন। পরে খোঁজ নিয়ে তাঁরা জানতে পারেন যে, অত্যাধুনিক সমস্ত যন্ত্রপাতি সবই এই হাসপাতালে রয়েছে। খোঁজ নিয়ে তাঁরা একথাও জানতে পারেন যে, যন্ত্রপাতি না থাকার মিথ্যে কথা শুনিয়ে ওই চিকিৎসক বাইরে চলে গিয়েছেন। 
হাসপাতালের সুপার তপন বিশ্বাস জানিয়েছেন, পরিকাঠামোর কোনও খামতি তাঁদের নেই। দিপালি দেবীর হাতের অস্ত্রোপচারের জন্য যন্ত্রপাতির কোন অভাবই হওয়ার কথা নয়। 

অন্যদিকে জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুকুমার দে জানিয়েছেন, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে সমস্ত রকমের জটিল থেকে জটিলতর অপারেশনের অত্যাধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে। সেখানে অপারেশনের জন্য আবশ্যিক সমস্ত যন্ত্রপাতি রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দীপালি পাহানের সামান্য হাতের অপারেশন করার মতো যন্ত্রপাতি নেই একথা মোটেও মেনে নেওয়া যায় না। কেন অলোককুমার মাইতি হাসপাতালে যন্ত্রপাতি থাকা সত্বেও অসহায় ওই মহিলার ভাঙা হাতের অপারেশন করেননি, সে বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন।

কী বলছেন জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক, দেখুন ভিডিও ১

দেখুন ভিডিও ২

Super Speciality Hospital Balurghat Dakshin Dinajpore
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -