SEND FEEDBACK

English
Bengali
English
Bengali

কংগ্রেস আসনের কাছে মুখ্যমন্ত্রী, ‘ভুঁড়ি কমানো’র পরামর্শ মান্নানকে

নিজস্ব প্রতিবেদন | মে ২০, ২০১৭
Share it on
সূত্রের খবর, মান্নানের কোলেস্টেরলের প্রসঙ্গ টেনে তাঁকে ‘ভুঁড়ি কমাতে’ বলেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি মান্নানকে হাঁটার পরামর্শ দেন।

বিধানসভায় সৌজন্যের ছড়াছড়ি!
বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানের স্বাস্থ্য সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে তাঁকে ভুঁড়ি কমানোর পরামর্শ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! আবার একদা সতীর্থ মানস ভুঁইয়ার সঙ্গে বিধানসভায় দেখা হয়ে গেল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর।

প্রথামাফিক শোকপ্রস্তাবের পর শুক্রবার বিধানসভার অধিবেশন শেষ হয়। আমচকাই পরিষদীয়মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সঙ্গী করে অধিবেশন কক্ষে বিরোধী দলনেতার আসনের দিকে যান মুখ্যমন্ত্রী। সেই সময় বামফ্রন্টের পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীর সঙ্গে অধিবেশনকক্ষে থেকে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন মান্নান। বিরোধী দলনেতার সঙ্গে মিনিট পাঁচেক কথা হয় মমতার।

সূত্রের খবর, মান্নানের কোলেস্টেরলের প্রসঙ্গ টেনে তাঁকে ‘ভুঁড়ি কমাতে’ বলেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি মান্নানকে হাঁটার পরামর্শ দেন। তবে বিরোধী দলনেতা জানিয়েছেন, পায়ে সমস্যার জন্য তাঁর পক্ষে হাঁটা সম্ভব নয়। সেইসময়ে পাশে দাঁড়ানো সুজনকে দেখিয়ে মান্নানকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ডাক্তারে’র থেকে পরামর্শ নিন। এক বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রীকে জানান, সুজন ‘ডাক্তার’ নন, ‘ডক্টরেট’। তৎক্ষণাৎ সংশোধন করে নেন মমতা। বিরোধী দলনেতার  খাওয়াদাওয়া প্রসঙ্গেও জানতে চান মুখ্যমন্ত্রী। কান্দির কংগ্রেস বিধায়ক অপূর্ব সরকার বলেন, ‘সবকিছুই খাচ্ছেন মান্নানদা’। বিরিয়ানি থেকে দূরে থাকার জন্য বিরোধী দলনেতাকে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। বিরোধী দলনেতা মুখ্যমন্ত্রীকে জানান, তিনি (মমতা) রোগা হয়ে গিয়েছেন।

এদিনের মমতার সঙ্গে আলাপচারিতাকে সৌজন্য বলেই ব্যাখা মান্নানের। তাঁর কথায়, ‘‘কখনও ব্যক্তিগত আক্রমণ করি না। সৌজন্য তো থাকবেই।’’ পাশাপাশি, বিধায়কদের জন্য বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে ১০ শতাংশ সংরক্ষণ থাকে। কিন্তু  অনেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তা মানছেন না বলেও মমতার কাছে নালিশ জানান কংগ্রেস বিধায়কদের একাংশ। অ্যাপোলো হাসপাতালের চিকিৎসা নিয়েও মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে মান্নানের।
সুজনকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, শিলিগুড়ির মেয়র তথা বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্যের চিনে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।

কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠক শেষে লবিতে মানসের মুখোমুখি হন অধীর। তিনি মানসকে বলেন, ‘আগেও সম্মান করতাম। তুমি তৃণমূলে চলে গিয়েছ বলে অকারণে রাগ করো না।’’ মানসের পাল্টা, ‘‘তোমাকে আগেও সম্মান করতাম। এখনও করি।’’ 

Mamata Banerjee Abdul Mannan Hossain
Share it on
Community guidelines
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -