দার্জিলিং মানেই ম্যাল-টয় ট্রেন নয়, কাঞ্চনজঙ্ঘার কোলে রয়েছে অচেনা এক জনপদও
যা দেখলাম, তা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। ঝলমলে রোদ, নীল আকাশ। আর তারই গায়ে যেন হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা, সারা শরীরে বরফের চাদর চাপিয়ে।
লাল জলের নদী আর সাতশো পাহাড়ে ঘেরা সারান্ডার জঙ্গলে সপ্তাহান্তের কাহিনি
শহুরে জীবন থেকে দু’দিনের ছুটি নিয়েই ঘুরে আসা যায় গভীর জঙ্গল থেকেয় সঙ্গে প্রকৃতির অপরূপ শোভা— পাহাড়, ঝরনা, নদী। কলকাতা থেকে রেল পথে মাত্র সাত ঘণ্টা।
গঙ্গার হাওয়া খেতে খেতেই ক্যাফের মজা, সঙ্গে ইতিহাসের ছোঁয়া
‘ডেনমার্ক ট্যাভার্ন’ এমনই এক ক্যাফে, যেখানে ইচ্ছে করলে দু’-এক দিন থাকাও যায়। তাও একেবারে গঙ্গার পাড়ে, সুসজ্জিত ঘরে।
সেখানে ‘থোকায় থোকায়’ জ্বলে জোনাকি, যাবেন নাকি এমন জায়গায়
বিভিন্ন পর্যটন সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমের সূত্র ধরে জানা যায় যে, বর্ষার শুরু, অর্থাৎ জুন মাস নাগাদ পুরুষওয়াদিতে সন্ধে হলেই জ্বলে ওঠে হাজার হাজার জোনাকি।
অবহেলায়-অযত্নে নেতাজির বাড়ি, তবু দেখে আসুন সেই ‘তীর্থ’
কোদালিয়া। দক্ষিণ ২৪ পরগনার এই স্থান কলকাতা থেকে বেশ কাছে। মাত্র ২৮ কিলোমিটার। এখানেই রয়েছে সুভাষচন্দ্র বসুর পৈতৃক বাড়ি। এবং তিনি নাকি দু’বার এই বাড়িতে থেকেছেন।
গ্যাংটকে গন্ডোগোল নয়, মেঘের গায়েই রেনবো আঁকলেন শ্রীলেখা
শুধু অভিনয়ই নয়, তাঁর কলমেও যে বেশ জোর রয়েছে তা বোঝা যায় ইতিউতি তাঁর লেখা ব্লগ থেকেই। এবার ‘পরিপিসি’ তাঁর ছোট্ট এক ভ্রমণকাহিনি শেয়ার করে নিলেন এবেলা.ইন-এর পাঠকের সঙ্গে।
হ্রদ, তাও আবার ভাসমান! বিশ্বের কোন দেশে রয়েছে এমন বিস্ময়
উত্তর-পূর্ব ভারতের ছোট্ট রাজ্য মণিপুর, এমনই এক প্রাকৃতিক নিদর্শনে সমৃদ্ধ। লোকটাক হ্রদ, ওই অঞ্চলের সর্ববৃহৎ ফ্রেশওয়াটার লেক। এবং বিশ্বের একমাত্র ‘ফ্লোটিং লেক’ও বটে।
মংপংয়ে মিনি ট্রিপ!
মংপংয়ে প্রথমেই যেটা খেয়াল করবেন, তা হল নৈঃশব্দ। মানুষের কোলাহল, গাড়ির আওয়াজে অভ্যস্ত কানকে শান্তি দেবে শালপাতার শিরশিরানি আর নদীর কুলকুল।
ঘুরে আসুন ডুয়ার্সের সামসিংয়ে
হাতে একটু সময় নিয়ে গেলে মিস করবেন না। সামসিংয়ে এখন একাধিক হোম-স্টে হয়েছে।
রাজনীতিকে বুড়ো আঙুল দার্জিলিঙের! ফের পুরনো গ্ল্যামার ফিরে পাওয়ার পরিকল্পনা
কয়েক মাস আগেও বাংলার এই পাহাড়ি অঞ্চলে যেতে ভয় পাচ্ছিলেন পর্যটকরা। রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে বিধ্বস্ত জেলায়  যখন-তখন পথ অবরোধ। চলল লাগাতার বন্‌ধ। ১০৪ দিন এমনই অবস্থা কাটানোর পরে, এখন দার্জিলিং তার পরিচিত ছন্দে।