মরণ বাঁচন ম্যাচে ব্রাজিল বনাম বেলজিয়াম! শেষ হাসি হাসবে কে

প্রিয়াংশ, কাজান, এবেলা.ইন | ৬ জুলাই, ২০১৮, ১৩:২৫:৪৮ | শেষ আপডেট: ৬ জুলাই, ২০১৮, ১৩:৩১:২৬
শুক্রবার রাত সাড়ে এগারোটায় ব্রাজিল বনাম বেলজিয়ামের মহারণ। কোয়ার্টার ফাইনালের সবচেয়ে চর্চিত ও হাই ভোল্টেজ ম্যাচ। একে তো ব্রাজিল। মেসি, রোনাল্ডো বিদায় নেওয়ার পরে নেমারের দলকে ঘিরে উচ্ছ্বাস চরমে। অন্যদিকে বেলজিয়ামকে নিয়েও উত্তেজনা রয়েছে। গ্রুপে পানামা ও তিউনিশিয়ার পাশাপাশি ইংল্যান্ডকেও গুঁড়িয়ে দিয়েছে। প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে জাপানের সঙ্গে ০-২ পিছিয়ে পড়ে ৩-২ করে বেলজিয়াম বুঝিয়ে দিয়েছে, তারা সহজে হাল ছাড়ার দল নয়। কাজেই নেমাররা যে হেলায় জিতবে এমনটা ফুটবল সমর্থকরা ভাবছেন না। বেলজিয়ামের কোচ রবার্তো মার্টিনেজ জানিয়েছেন, তাঁদের সঙ্গে ব্রাজিলের তেমন কোনও ফারাক নেই। শক্তিতে দুই দলই প্রায় সমান। কিন্তু বিশ্বকাপ জেতার ‘এক্স ফ্যাক্টর’ যে ব্রাজিলের জানা, সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি। এই কথা বলে তিনি নেমারদের উপরে চাপ বাড়ালেন বলেই মনে করছেন অনেকে। কিন্তু তাঁর কথাটা মোটেই কথার কথা নয়। পাঁচবারের বিশ্বজয়ীরা যে প্রতিযোগিতা এগনোর সঙ্গে সঙ্গে দারুণ ভাবে পিক করছে, সেটা নজর এড়াচ্ছে না সমালোচকদের। বিশ্বজয়ের ষষ্ঠ খেতাব সেলেকাওরা জিতে ফেলতেই পারেন বলে ধারণা করছেন তাঁরা। এদিকে ব্রাজিলের সমর্থকরা প্রিয় দলের জয় দেখতে মুখিয়ে। তাঁরা সাম্বা নাচে, হইহুল্লোড়ে মেতে রয়েছেন। আপাতত অপেক্ষা। বিশ্বজয়ের পথে আর এক ধাপ এগিয়ে যাওয়ার। বেলজিয়াম পথের কাঁটা হতে পারবে না বলেই তাঁদের দৃঢ় বিশ্বাস। সে বিশ্বাস অবশ্য কেবল ওই সমর্থকদেরই নয়, সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা সাম্বা-ভক্তদেরই। তার মধ্যে কলকাতার ফুটবল-পাগলরাও রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম হয়ে রয়েছে তাদের করা একের পর এক পোস্টে। এখন দেখার, নেমাররা শুক্রবারে আরও একটা জয়ের মাধ্যমে ভক্তদের জন্য আরও খুশি নিয়ে আসতে পারেন কি না। সৌজন্যে— মেটালম্যানিয়া কেভিন ম্যাকলয়েড। (ইনকম্পিটেক.কম)। লাইসেন্সড আন্ডার ক্রিয়েটিভ কমনস: ৩.০ লাইসেন্স ক্রিয়েটিভকমন্স.ওআরজি/লাইসেন্স/বাই/৩.০/
Community guidelines